মেইন ম্যেনু

সকালের যে ৬ টি ভুল কাজে শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন আপনি!

সকালে ঘুম থেকে উঠার পর আমরা কি করছি, না করছি তার প্রতি লক্ষ্য রাখা অত্যন্ত জরুরী। কারণ আমাদের নিজেদের কাজের ওপরেই আমাদের শারীরিক সুস্থতা অনেকাংশে নির্ভর করে। সকালে করা কিছু ভুল কাজের কারণে অল্পতেই বুড়িয়ে যাওয়া, শারীরিক অক্ষমতা এবং শারীরিক দুর্বলতার সমস্যায় ভুগে থাকেন অনেকেই। এমন কিছু কাজ রয়েছে যা মন মেজাজের পাশাপাশি দেহকেও পরিশ্রান্ত করে ফেলতে পারে দিনের শুরুতেই। আর দীর্ঘদিন ধরে এই কাজগুলো শারীরিকভাবে অক্ষম করে ফেলে আপনাকে। এই ভুল কাজগুলোর কারণে দেহে হারায় স্বাভাবিক সুস্থতা।

১) বিরক্তি নিয়ে ঘুম থেকে উঠা
সকালে ঘুম থেকে উঠেই অনেকে ভাবেন, ‘উফ, আরেকটি কর্ম ব্যস্ত দিন’। আর এতে করেই মন মেজাজ একেবারে খারাপ হয়ে যায়। এই চিন্তার কারণে আপনার দিন তো খারাপ যায়ই, সেই সাথে আপনি মানসিকভাবেও একেবারে অপ্রস্তুত থাকেন। এতে করে পুরো দিনই কোনো না কোনো সমস্যায় পড়তে থাকেন। ব্যাপারটি আসলে কিছুই নয়। আপনার বিরক্তি নিয়ে কাজ করার বিষয়টি আপনার কাজ ভুল হওয়ার জন্য দায়ী থাকে। তাই সকাল সকাল নেতিবাচক চিন্তা না রেখে, ভাবুন, ‘আরেকটি নতুন সকালের শুরু’। দিন ভালো যাবে।

২) সকালের আলো একেবারেই না দেখা
আপনি একেবারে পর্দা টানা অন্ধকার ঘরে ঘুম থেকে উঠে তারপর সকালের কাজগুলো সেরে কর্মক্ষেত্রের জন্য রওনা হলে অবশ্যই সকালের আলো গড়িয়ে যায়। আর প্রতিদিনের এই রুটিনের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন আপনি। গবেষণায় দেখা যায় ভোরের আলো স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী। যারা সকালের আলোতে দিন শুরু করেন তারা শারীরিকভাবে অন্যান্যদের তুলনায় বেশি ফিট থাকেন। তাই ঘুম থেকে উঠেই পর্দা সরিয়ে কিছুটা আলো লাগিয়ে নিন গায়ে। সম্ভব হলে সকালের নাস্তা বারান্দায় বসেই করে নিন। সুস্থ থাকবেন।

৩) খালি পেটে ব্যায়াম করা
অনেকেই সকালে ঘুম থেকে উঠে কিছু না খেয়েই শারীরিক ব্যায়াম সেরে নেন। কিন্তু এতে আপনি নিজের ক্ষতিই করছেন। সারারাত না খাওয়ার ফলে পেট অনেকটা সময় ধরে খলি থাকে। তার উপর শারীরিক পরিশ্রমের কারণে আপনার দেহের অঙ্গপ্রত্যঙ্গের অতিরিক্ত কাজ করতে হয়। এতে শরীর সকালের শুরুতেই ক্লান্ত হয়ে পড়ে। এবং দিন গড়ার সাথে সাথে আপনি যতোই এনার্জি সমৃদ্ধ খাবার খান না কেন ক্লান্তি বাড়তে থাকে। কারণ সকালের ভুল কাজটির কারণে আপনার স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা হ্রাস পেয়ে যায়। তাই শারীরিক ব্যায়ামের আগে প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেট জাতীয় নাস্তা করে নিন।

৪) পানি পান না করা
সকালে ঘুম থেকে উঠেই পানি পান না করার কারণে দেহ পানিশূন্যতায় পড়ে যায়। বিশেষ করে গরমকালে। পানি শূন্যতার কারণে আপনার শারীরিক ক্ষমতা ধীরে ধীরে হ্রাস পেতে থাকে যা পরিণত হয় শারীরিক দুর্বলতায়। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠে পানি পান না করার মতো ভুল কাজ করবেন না একেবারেই।

৫) বিছানায় বসে বেড-টী পান করা
সকালবেলা বিছানায় বসেই অনেকে বেড-টী পান করার মতো ভুল করে থাকেন। ঘুম থেকে উঠেই জড়তা কাটানোর এই প্রক্রিয়াটি আপনার দেহের অপর মারাত্মক প্রভাব ফেলে। সারারাত শেষে সকালে এমনিতেই দেহে পানির অভাব হয়। তার ওপর ক্যাফেইন জাতীয় পানীয় পান করার ফলে দেহ আরও পানিশূন্য হয়ে পড়ে। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠে চা বা কফি পানের অভ্যাস বাদ দিন। নাস্তার শেষের দিকে চা/কফি পান করুন।

৬) সকালে নাস্তা না করা বা খুব অল্প নাস্তা করা
সারারাত শেষে সকাল বেলা আমাদের দেহ পুষ্টিকর খাবার খুঁজে থাকে। সারাদিনের এনার্জি আমরা মূলত সকালের নাস্তা থেকেই পেয়ে থাকি। তাই সকালে নাস্তা না করা কিংবা খুব সামান্য নাস্তা করা আপনার পুরো দিনটিকে নষ্ট করে দিতে পারে। কাজে এনার্জি না পাওয়া এবং ক্লান্তি অনুভব করা সকালে নাস্তা না করার ফল। দীর্ঘ সময় এই কাজটি করে গেলে তা আপনার মস্তিষ্কের উপরেও মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। তাই সকালে নাস্তা না করার ভুলটি এড়িয়ে চলুন।

সূত্রঃ menshealth.com