মেইন ম্যেনু

সকালে এড়িয়ে চলবেন যে ভুলগুলো

সকালে আপনি যখন ঘুম থেকে জেগে ওঠেন তখন আপনার মেজাজ খুব খারাপ থাকে? আপনি কি ব্রেকফাস্ট করেন না? কয়েকটি সহজ পরিবর্তন আপনার সকালটিকে রুপান্তর করতে পারেন স্নিগ্ধ ও মনোমুগ্ধকর সময়ে। কি করে? আসুন জেনে নিন:

ঝাকুনি দিয়ে নিদ্রা ভঙ্গ করা:
সকাল খুব ধীর গতির সময় হয়। খুব আস্তে আস্তে জেগে উঠুন এবং ধীরে ধীরে আপনার পেশীকে কার্যক্ষম হতে সময় দিন। বিশেষজ্ঞদের মতে সকালে বিছানা থেকে উঠে মুখ ধুয়ে কিছুটা সময় যোগ সাধনা করা উচিৎ। অনেকেই ঝাকুনি দিয়ে উঠেই জিম করা শুরু করে দেয়, এটা স্বাস্থের জন্য একদমই ভালো না।

স্ট্রেচিং না করা:
আমরা যখন ঘুম থেকে উঠে থাকি তখন আমাদের মেরুদন্ড ও শরীরের অন্যান্য পেশী কিছুটা শক্ত হয়ে থাকে। এতে ঘুম থেকে উঠেই স্ট্রেচিং অথবা শরীরকে প্রসারিত করতে হয়। ফলে আমাদের শরীরের উৎপাদনশীলতা ঠিক থাকে। ঘুম থেকে উঠেই তিন-চার বার স্ট্রেচিং করুন এবং কয়েকবার গভীরভাবে নিঃশ্বাস নিন।

চা দিয়ে দিন শুরু করা:
আপনার সকাল কখনোই চায়ের সাথে শুরু করবেন না। চায়ে কিছু ক্ষারীয় উপাদান রয়েছে, যা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। তবে, লেবুর রসের সাথে গরম পানি মিশিয়ে খেতে হবে। সাদা অথবা সবুজ চা পান করতে পারেন।

ব্রেকফাস্ট না করা:
সাম্প্রতিক একটি অনুসন্ধানী রিপোর্টে জানা গেছে, সকালে নাস্তা না করলে আমাদের শরীরে স্থুলতা, ডায়বেটিস ও দুর্বলতার সৃষ্টি হয়ে থাকে। বিজ্ঞজনেরা বলেন, “যদি কখনও সকালের নাস্তা না খাওয়া অবস্থায় দিনটি আরম্ভ করেন তবে আপনার সম্পূর্ণ দিনটি ভুল খাবারের মধ্য দিয়েই যাবে।

সামনের দিনের পরিকল্পনা না করা:
মানুষের সব থেকে বড় ভুল হল আগে থেকেই সব কিছু গুছিয়ে না রাখা। সকালে উঠে সকল কাজ একসাথে করতে যেয়ে আরও বিপত্তির সম্মুখীন হতে হয়। তাই সকালের নাস্তার উপকরণ তৈরি রাখা এবং পরিধান করার কাপড় অন্তত প্রস্তুত রাখা উচিৎ।

ঘুম থেকে উঠেই ফোন চেক করা:
সকালে ঘুম থেকে উঠেই আপনি মেইল চেক করবেন না। কারন এতে আপনার মেজাজ খারাপ হতে পারে। সকালে ঘুম থেকে উঠেই সব সমস্যা সমাধানের চেষ্টায় নেমে পরার দরকার নেই বরং অফিসের কাজ অফিসেই করে ফেলুন।

নিকোটিন বা ক্যাফিন গ্রহণ:
সকালে উঠেই অনেকেই ধূমপান করে থাকেন। খালি পেটে ধূমপানের কারনে পেটের হজম শক্তিতে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাছাড়া এর কারনে শরীরের পুষ্টিও ধ্বংস হয়ে থাকে। -সূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিইয়া।