মেইন ম্যেনু

সবই যদি আমি করি, অন্যরা কি করবে?

তাকে পাওয়া যায় না সাংবাদিকদের এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘আওয়ামী লীগ একটি বড় দল। সব কাজই যদি আমি করি, অন্যরা কি করবেন? তাদেরও তো কথা বলতে হবে। আর প্রতিদিন মিডিয়ায় কথা বললে গুরুত্ব থাকে না, জনপ্রিয়তা কমে যায়। তারপরও তো আমি কথা বলি, কাজ করি।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে গণমাধ্যম সম্পাদকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সার্বজনিন করতে মিডিয়াকে আরো ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়ে সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমার মাতৃভূমির রূপকার ও প্রশ্রয়দাতা। আমি জানি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে মিডিয়া বৈরী কোনো মনোভাব পোষণ করে না। তারপরও বঙ্গবন্ধুকে আরো বেশি করে তুলে ধরার জন্য মিডিয়াকে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা পালন করতে হবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহদাতবার্ষিকী উপলক্ষে আমরা ৪০ দিনের কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। এ কর্মসূচি সফল করতে গণমাধ্যম তার ক্রিয়েটিভিটি দিয়ে জাতির কাছে উপস্থাপন করবে বলেই আশা প্রকাশ করছি।’

এ মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহউদ্দিন নছিম, আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, উপ-দপ্তর সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাস, উপ-প্রচার সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, বৈশাখী টিভির প্রধান সম্পাদক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, আমাদের অর্থনীতি সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, ডিইউজে সভাপতি আলতাফ মাহমুদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাবান মাহমুদসহ গণমাধ্যম কর্মী ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা।