মেইন ম্যেনু

সবচেয়ে গরীব মানুষটিকে খুঁজে পেল না ভারত সরকার

দেশের সবথেকে গরীব মানুষ কে? উত্তর নেই ভারতীয় সরকারের কাছে। তাই তাঁকে দেওয়ার জন্য পাওয়া ফান্ড ফিরে গেল প্রধানমন্ত্রীর ঘরেই। সরকারের লোকজনেরা মাথার ঘাম পায়ে ফেলেও নাকি খুঁজে বের করতে পারেননি সেই বিশেষ একজনকে।

অনেকটা সেই বুদ্ধদেবের একমুঠো সরষে খুঁজে আনার গল্পের মত। যে বাড়িতে কারও, কখনও মৃত্যু হয়নি এমন বাড়িই খুঁজে পাওয়া যায়নি। ঠিক তেমনই ভারত জুড়ে দরিদ্রের সংখ্যা এতটাই বেশি, যে কাউকে আলাদা করে চিহ্নিত করা সম্ভব হয়নি।

তাই ভারতের দরিদ্রতম মানুষটিকে চিহ্নিত করতে না-পারায়, এক অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষকের দানের টাকা শেষমেশ ফিরিয়েই দিল প্রধানমন্ত্রীর দফতর। রাজস্থানের অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক দীপচাঁদ শর্মা গত বছর এক লক্ষ টাকা দান করেছিলেন দেশের সবচেয়ে গরীব মানুষটির জন্য।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতেই প্রধানমন্ত্রীর দফতর সেই দানের টাকা সবিনয়ে ফিরিয়ে দেয়। সরকারের তরফে জানানো হয়, কাজটি কঠিন। তাই দানের টাকা ফিরিয়ে দেওয়া হল।

সম্পত্তির নিক্তিতে বিশ্বের ধনপতি মানুষদের মাপার ব্যবস্থা রয়েছে। ফোর্বস সহ আরও অনেক ম্যাগাজিন ধনকুবেরদের তালিকাও প্রকাশ করে নিয়মিত।

কিন্তু, গরীবদের এমন কোনও ব্যবস্থা নেই। ২০১২-র সরকারি পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, ভারতে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা ৩৬ কোটি ৩০ লক্ষ। দেশের মোট জনসংখ্যার ২৯% দরিদ্র শ্রেণির।