মেইন ম্যেনু

সবসময় যৌন মিলনের জন্য জোরপ্রয়োগ করে, আমার নিজের ইচ্ছার কোনো দাম নেই…

আপু, একজনের সঙ্গে আমার প্রায় সাতবছর সম্পর্ক ছিল। যখন তাকে বিয়ের কথা বলতাম, তখন ও বলতো যে ও আমাকে বিয়ে করতে পারবে না। কারণ তাঁর মনে হয় আমি নোয়াখালীর মেয়ে। তাঁর এমন মনে হয় কারণ আমি অ্যাডোপটেড মেয়ে। এটা ও আগে থেকেই জানত। তখন ও বলেছিল এতে ওর কোনো সমস্যা নেই। জানেন আপু, ওর জন্য আমি অনেক কিছু করেছি। আমি গরিব ঘরের মেয়ে। খুব কষ্টে সংসার চলে আমাদের। তবুও ওকে আমি নিজে না খেয়ে টাকা দিয়েছি। নিজে বিশ্ববিদ্যালয়ে টাকা জমা না দিয়ে ওকে টাকা দিয়েছি, যাতে ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারে। ওরসঙ্গে আমার ফোনে কোনো কথা হতো না। শুধু দুই ঈদে দেখা হতো। যাহোক, ভাগ্যকে মেনে নিয়েছি, ও আমাকে মানা করে দিয়েছে।

খুব কষ্টে গত একবছরে নিজেকে সামলে নিয়েছি। কিন্তু গত একবছর আগে ফেসবুকে একজনের সঙ্গে পরিচয় হয়। সে আমার সব কিছু জেনে বিয়ে করতে চায়। কিন্তু আপু সমস্যা হচ্ছে গত চার পাঁচমাস হলো সে বদলে গিয়েছে। আমাকে কারো সঙ্গে মিশতে দেয় না। আমাই আমার কোনো বন্ধুর সঙ্গে কথা বলতে পারি না, হোক সেই বন্ধু মেয়ে কিংবা ছেলে। আমার আত্মীয় স্বজনদের সঙ্গেও মিশতে পারি না। সবসময় কথায়-কাজে শারীরিক সম্পর্কের জন্য বলপ্রয়োগ করে। আমার নিজের ইচ্ছার কোনো দাম নেই। আমার মা যদি কিছু বলে, সেই কথা তাকে বললে সে বলে- সে যদি তোমার নিজের মা হতো তাহলে এমন কথা বলতে পারত না।

আমি এমবিএ শেষ করা একটি মেয়ে। আমার পরিবারের অবস্থাও ভালো না। একটি চাকরি দরকার কিন্তু আমি তাঁর জন্য কোথাও আবেদনও করতে পারছি না। কিছুদিন আগে আমি তাঁর জন্য ৩০ হাজার টাকা বেতনের একটি চাকরি হাত ছাড়া করে ফেলেছি। একমাস হলো তাঁর জন্য আমি ফেসবুক ব্যবহার করা বাদ দিয়ে দিয়েছি। সে আমার ফেসবুক পাসওয়ার্ড জানে তাই সে আমার প্রোফাইল চেক করে। আমি কার সঙ্গে কী কথা বললাম সেটা নিয়ে অনেক ঝামেলা হয়। আপু আমি বুঝতে পারছি না আমি কী করব। আপু, অনুগ্রহ করে আমাকে সাহায্য করুন।

পরামর্শ: আপু, আমি এখনো বুঝতে পারছি না যে আপনি সেই লোকটির সাথে সম্পর্ক রেখেছেন কেন? আপনার পর পর দুটি প্রেম এসেছে জীবনে, দুটি লোকই একেবারে যা তা। নারি সম্পর্কে েদের মনে কোন সম্মান নেই, সম্পর্কের মূল্য এরা দিতে জানে না, নারীকে সর্বদা পায়ের নিচেই থাকতে চায়। আমি বুঝতে পারছি না আপু যে আপনার মত একটি মেয়ে কেন এই থার্ড ক্লাস লোক দুতিতে এতদিন সহ্য করেছেন আর এখনো করছেন? জাস্ট লিভ হিম আপু, এই সম্পর্কের ঘেরাটোপ থেকে বেড়িয়ে আসুন। এই লোকের সাথে থাকলে প্রত্যেকটা দিন মৃত্যুসম মনে হবে। প্রেমিক গেলে প্রেমিক পাবেন আপু, কিন্তু জীবনে নিজের পায়ে দাঁড়ানোর সুযোগ মিস করলে সেটা আর দ্বিতীয়বার পাবেন না।

একটা কথা বলি আপু, আপনার চিঠি পড়ে মনে হল যে আপ্নিখুব হীনমন্যতায় ভোগেন। মনে করেন যে আপনি কারো যোগ্য না, তাই কেউ ভালবাসলেই তাঁর হয়ে যান। এটা ঠিক না আপু। আপনি কারো চাইতে কম না, বরং অনেক বেশি। পালক সন্তান হয়েই দারিদ্রতার সাথে যুদ্ধ করে আপনি এতদূর এসেছেন, এটা সবার পক্ষে সম্ভব না। আপনার উচিত চাকরি বাকরি করে সেই পরিবারের জন্য কিছু করা, যারা কিনা আপনাকে আজ এতদূর আসতে সহায়তা করেছে। জীবনে সবার প্রথমে আপনি নিজে নিজের আপন আপু, তারপর পরিবার। প্রেমিক বা স্বামীর অবস্থান অনেক পেছনে।একজন ভুল মানুষকে নিজের জীবনে অধিকার দিয়ে সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকার সুযোগ হেলায় হারাবেন না প্লিজ।