মেইন ম্যেনু

‘সবাই দোয়া করেন, জানি না বাঁচমু না মইরা যামু’

‘সবাই আমার জন্য দোয়া করেন, জানি না বাঁচমু না মইরা যামু।’ গুলশান ২ নম্বরের ৭৯ নম্বর রোডে ‘ও কিচেন’ রেস্টুরেন্টের কুক দীন ইসলাম রাকিব শুক্রবার দিবারাত ১০টা ৫৫ মিনিটে জিম্মিদশা থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এমন স্ট্যাটাস দিয়ে ফেসবুক বন্ধু ও স্বজনদের কাছে দোয়া চান।

স্ট্যাটাসের সঙ্গে তিনি একটি ফটোগ্রাফও পোস্ট দেন। ছবিতে রাকিবসহ মোট পাঁচ যুবককে খালি গায়ে (সম্ভবত রেস্টুরেন্টের ভেতর) দাঁড়িয়ে ও বসে থাকতে দেখা যায়। বসে থাকা এক যুবককে ভীষণ ক্লান্ত ও বিষন্ন দেখা যায়।

রাকিবসহ ২০ থেকে ২৫ জন দেশি-বিদেশি গ্রাহক, কিচেন ও হলি আর্টিসান বেকারিতে সন্ত্রাসীদের হাতে রাত সাড়ে ৮টা থেকে জিম্মি হয়ে আছেন। পাঁচ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত তাদের ভাগ্যে কি ঘটেছে তা জানা যায়নি।

শুক্রবার রাতে ২০/২৫ জন যুবক ফিল্মি স্টাইলে সেখানে প্রবেশ করে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে। পুলিশ গেলে তাদের সঙ্গে কয়েক দফা গোলাগুলিও হয়। দুর্বৃত্ত্বদের গুলিতে বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সালাউদ্দিন আহমেদ ও গোয়েন্দা পুলিশের রবিউল ইসলাম নিহত এবং বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হন।

র‌্যাব, সোয়াট, ডিবি ও পুলিশ ঘটনাস্থল ঘিরে আছে। র‌্যাব মহাপরিচালক গণমাধ্যমকে বলেছেন, আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করতে চান।