মেইন ম্যেনু

‘সবাই পুরনো মাল’

শেষ মুহুর্তে বাংলাদেশের মানুষের করের বোঝা বাড়িয়ে সরকারের ব্যয় বৃদ্ধি করে আরো নতুন মন্ত্রী নেয়া হচ্ছে। এতে সরকারের কর্মদক্ষতা বাড়বে বলে আমরা মনে করি না। সবাই পুরনো মাল, এদেরকে নিয়ে নতুন কিছু হবে বলে আমরা মনে করি না।

মঙ্গলবার রাজধানীর সেগুন বাগিচায় জিয়া নাগরিক ফোরাম জিনাফ আয়োজিত ইফতার মহাফিলে অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব মন্তব্য করেছেন বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আ স ম হান্নান শাহ।

তিনি আরো বলেন, ‘শুনতে পেলাম, আসার সময় পেপারেও দেখেছি বেশ কয়েকজনকে আবার মন্ত্রী বানানো হচ্ছে। যখন কোনো সরকার এই ভাবে মন্ত্রী বানানো শুরু করে তখনই বুঝে নেবেন তাদের দিন প্রায় শেষ। শেষ মুহুর্তে যাদের মন্ত্রী বানানো হচ্ছে তারা কোনো না কোনো সময়ে সরকারের মন্ত্রী হিসেবে ছিলো। তাদের অতীত রেকর্ড মোটেও ভালো নয়।’

হান্নান শাহ বলেন, ‘এখন মায়াকে নিয়ে মায়া কান্না শুরু হয়েছে। কামরুলকে ভীমরুল বানানোরে চেষ্টা হয়েছিলো। ভীমরুলের কামড়ে গম পঁচা হয়ে গেছে। সে কারণে সরকারও পঁচে গেছে।’

সরকারের বিভিন্ন জায়গায় বিএনপিপন্থিদের ইফতার কর্মসূচিতে বাধা দিয়েছে অভিযোগ করে বিএনপির শীর্ষ এই নেতা বলেন, ‘রমজানের দিনে বলতে খারাপ লাগে। যারা ধর্ষণ করে, এই সরকার তাদের দলীয়ভাবে, রাষ্ট্রীয়ভাবে পুরস্কৃত করছে। তাই এই সরকার জনগণের সরকার হতে পারে না।’

জিনাফের সভাপতি আনেয়ার হোসেন এর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজউদ্দিন আহমেদ, বিএনপি নেতা আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, ব্যারিস্টার পারভেজ এনডিপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ইসা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।