মেইন ম্যেনু

‘সমর্থন সেই মেয়েটিকেও করুন যে চারটি স্বর্ণ জিতে অলক্ষ্যে ঢাকা ফিরেছে’

কলকাতার শীর্ষ দৈনিক আনন্দবাজারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলা এই মন্তব্য আর কারো নয়, মাশরাফি বিন মুর্তজার। বাংলাদেশ দলের সীমিত ওভারের এই অধিনায়ক সমর্থকদের সমর্থন প্রসঙ্গে এভাবেই নিজের মনের কথা বলেছেন।

শুধু অধিনায়কত্ব নয়। অনেক আগে থেকেই সবার মনে জায়গা করে নিয়েছেন একসময়ে এদেশের গতিদানব মাশরাফি বিন মুর্তজা। গাদাখানেক ইনজুরির কারণে সে ঝাঁজটা শরীরে আর নেই বটে, কিন্তু মনের জোরটা আগের মতোই একরোখা।

সাফল্যের শুরুটা গত বছরের ওয়ানডে বিশ্বকাপ থেকে। প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা; এরপর দেশে পাকিস্তান,ভারত আর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টানা ওয়ানডে সিরিজ জয়। এরপর চারিদিকে যখন সমালোচকদের হৈহৈ রব, ‘টি-টোয়েন্টিতে এখনো ভূতের গলিতে বাংলাদেশ’; তার মধ্যেই এশিয়া কাপের মাধ্যমে শ্রীলংকা আর পাকিস্তানকে হারিয়ে নতুন আলোর পথ দেখাচ্ছেন মাশরাফিরা।

এর জন্য দেশের কোটি সমর্থকদের সমর্থনদেরকে উল্লেখযোগ্যভাবে দেখা হয়। সাক্ষাৎকারেও এই প্রসঙ্গটি উঠে আসে। এ জন্য সমর্থকদেরকে বরাবরের মতো এবারেও ধন্যবাদ দিয়েছেন। কিন্তু জুড়ে দিয়েছেন কিছু আক্ষেপের কথা। তার মতে, ক্রিকেট স্পোর্টসের একটা অংশ। তারা ইদানিং ভালো করছে। তাই বলে বাকিদের সমর্থন দেওয়া হবে না, এটা কেমন কথা!

তিনি বলেছেন, ‘আমি ভেতর থেকে বিশ্বাস করি সমর্থকরা আমাদের সমর্থন করছেন খুব ভালো। আমার টিম কৃতজ্ঞ। কিন্তু সেই মেয়েটিকেও করুন যে এসএ গেমসে চারটে স্বর্ণ জিতে সবার অলক্ষ্যে ঢাকা ফিরেছে। আমরা যদি স্পোর্টসের লোক হই তো ওই মেয়েটিও স্পোর্টসেরই লোক।’

সমর্থকদের উদ্দেশ্যে পরামর্শ দিয়ে বলেছেন, ‘সাপোর্ট জীবনের সব বিভাগে করুন। তা হলেই তো বাংলাদেশ এগোতে পারবে। শুধু ক্রিকেটে পড়ে থেকে কী লাভ!’