মেইন ম্যেনু

সমুদ্রে ডোবার আগে প্লাবনের শেষ সেলফি!

বন্ধু নেওয়াজকে নিয়ে গিয়েছিলেন পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকতে। সাঁতার জানতেন না। তবু গোসল করতে নামার আগে নিজের মুঠোফোনে তোলেন কয়েকটি সেলফি। ওই সেলফিগুলোই কি প্লাবন আহমেদের (১৯) শেষ সেলফি হচ্ছে!

আজ শুক্রবার দুপুর থেকে প্লাবন নিখোঁজ। তখন থেকে সমুদ্রে অনেক খোঁজা হচ্ছে। কিন্তু প্লাবনকে পাওয়া যায়নি।

পুলিশ জানায়, নিখোঁজ প্লাবন তাঁর ঢাকার বন্ধু নেওয়াজকে নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে কুয়াকাটায় বেড়াতে আসেন। কুয়াকাটায় সান নামক একটি হোটেলে তাঁরা উঠেছিলেন। আজ শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে দুই বন্ধু সমুদ্রসৈকতে গোসল করতে নামেন। আধা ঘণ্টা পর সাগরের উত্তাল ঢেউয়ে প্লাবন আহমেদ নিখোঁজ হন। তাঁর সঙ্গে থাকা বন্ধু নেওয়াজের চিৎকারে অন্য পর্যটকসহ এলাকাবাসী এগিয়ে আসে। স্থানীয় জেলেরা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাঁর খোঁজ পায়নি।

কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশের সহকারী সুপার (এএসপি) মীর ফসিউর রহমান জানান, স্থানীয় লোকজন ও ট্যুরিস্ট পুলিশের সদস্যরা উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন। ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদেরও খবর দেওয়া হয়েছে।

মীর ফসিউর রহমান জানান, নিখোঁজ প্লাবনের বাড়ি মাগুরা সদর উপজেলার দেলনগর গ্রামে। তিনি এ বছর মাগুরা হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন।