মেইন ম্যেনু

সরকারি কর্মচারী আইন'র খসড়া অনুমোদন

মন্ত্রিসভা বৈঠকে ছিলেন না সৈয়দ আশরাফ

দফতর হারানোর পর সোমবারের মন্ত্রিসভা বৈঠকে উপস্থিত হননি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। গত ৯ জুলাই সৈয়দ আশরাফকে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে দফতরবিহীন মন্ত্রী করা হয়।

সোমবার বর্তমান মন্ত্রিসভার ৬৯তম বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করেন।

মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘আজকের বৈঠকে দফতরবিহীন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ছিলেন না, তার মানে এই নয় যে আগামীতে বৈঠকে তিনি থাকবেন না।’

বৈঠকে আশরাফুল ইসলামকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল কিনা? জানতে চাইলে মোশাররাফ হোসাইন সরাসরি কোনো উত্তর না দিয়ে তিনি বলেন, ‘প্লিজ, আমি যা জবাব দিয়েছি তা থেকে বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করুন।’

মন্ত্রিসভার পরিবর্তন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী কোনো নির্দেশনা দিয়েছেন কিনা জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘রিশাফল (পরিবর্তন) হলে তো এখানে এভাবে বলব না। এখানে তো কেবিনেটের এজেন্ডা নিয়ে ব্রিফিং করতে আসছি। মন্ত্রিসভার রিশাফল হয়ে গেলেই আপনারা জেনে যাবেন, আমরাই প্রেস রিলিজ দিয়ে দিব।’

সরকারি কর্মচারী আইন’র খসড়া অনুমোদন

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সরকারি কর্মচারী আইন ২০১৫-এর খসড়া নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

প্রধামন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে সোমবার এ অনুমোদন দেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

সরকারি কর্মচার আইন ছাড়াও পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র অধ্যাদেশ ২০১৫-এর খসড়ারও মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত হয়েছে বলে জানা গেছে।