মেইন ম্যেনু

সরকারি সড়কের উপর পাকা কবর নির্মাণ করায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

আরমান জাহান চৌধুরী, মদন (নেত্রকোনা) থেকে : গত সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোনা ৪ আসনের বিএনপির সংসদ সদস্য প্রার্থী লেঃ কর্ণেল (অবঃ) সৈয়দ আতাউল হক তার গ্রামের বাড়ির সামনে সরকারি সড়কের উপর পারিবারিক পাকা কবর নির্মাণ করে দুই গ্রামবাসীর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছেন। এতে এসব এলাকার লোকজন যাতায়াত, মালামাল পরিবহন ও রোগীদের নিয়ে পড়েছে বিপাকে।

বৃহস্পতিবার সরেজমিনে গেলে তিয়শ্রী গ্রামের সামনে এলজিইডি সড়কে কবর নিমার্ণের বাউন্ডারি করে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করার ঘটনাটি চোখে পড়ে । লোকজন দৈনন্দিন কাজকর্ম সম্পাদন করে উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে বাড়িতে ফিরতে এই জায়গায় এসে থেমে যায়। বাকী রাস্তা পায়ে হেটে যেতে হয়। এতে যাতায়াতকারীরা পড়েছে বিড়ম্বনায় । এ ব্যাপারে ভোক্তভোগীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

ভোক্তভোগী মোঃ আঃ লতিফ,মোঃ রোকনুজ্জামন,মোঃ নজরুল ইসলাম,আলী আকবর,আব্দুর রশিদ,মোঃ বুলবুল মিয়া জানান, আমরা দীর্ঘদিন ধরে তিয়শ্রী ও ভবানীপুর গ্রামের লোকজন এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে আসছি। সম্প্রতি লেঃ কর্ণেল (অবঃ) সৈয়দ আতাউল হক গ্রামের বাড়িতে এসে এই সড়কের উপর পাকা কবর নির্মাণ করে জনগনের যাতায়াত সম্পূর্ণভাবে বিচ্ছিন্ন করে দেন। তিনি গত সংসদ নির্বাচনে নিজ কেন্দ্রে প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীর চেয়ে কম ভোট পাওয়ায় এলাকাবাসীর প্রতিক্ষুব্ধ ছিলেন। এরই জের ধরে তিনি এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে আমাদের ধারনা। আমরা কর্তৃপক্ষের বরাবর রাস্তা পরিষ্কার করে দেওয়ার জন্য আবেদন করেছি।

ইউপি চেয়ারম্যান ফকর উদ্দিন আহম্মদ বলেন, এতদ সংক্রান্ত জনগণের অভিযোগটি নির্বাহী কর্মকর্তা আমাকে দেখতে বলেছেন সেখানে গেলে কবর আছে বলে কোন আলামত মিলেনি।

জনবহুল রাস্তাটি উনার বন্ধ করা ঠিক হয়নি। এতে যাতায়াত কারীদের দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।

লেঃ কার্ণল (অব.) সৈয়দ আতাউল হক বলেন, আগে পায়ে হেটে এলাকার লোকজন যাতায়াত করত,এখানে আমার মা খালাসহ ৪টি কবর রয়েছে তাই পাকা করে ভাউন্ডারি দিয়েছি। তবে পুকুরের পূর্বপাড় দিয়ে লোকজন যাতায়াতের জন্য সাবেক চেয়ারম্যানকে বার বার বলেছি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ খুরশীদ শাহরিয়র জানান,এ ধরনের একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি নিষ্পত্তি করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও এল জি ই ডি প্রকৌশলীকে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেছি।