মেইন ম্যেনু

সরকারের নিষেধাজ্ঞা জারি থাকলেও সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়নি ইলিশ ধরা

মাসুদ রেজা ফিরোজী, মাদারীপুর : আমাদের দেশের সরকার ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত ইলিশের প্রজনন মৌসুম থাকার কারনে সকল নদী হতে ইলিশ ধরা নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এই ২২ দিন ইলিশ ধরা নিষেধাজ্ঞা জারি থাকলেও ইলিশ ধরে অনেক জেলেরা তাদের জীবিকা নির্ধারন করে থাকে।

কিছু জেলেদের কথা হচ্ছে, ইলিশ ধরা বন্ধ থাকলে তাদের সংসার চলনো যাবে না। তাই তারা বাধ্য হয়ে এসব নদী থেকে ইলিশ মাছ ধরে থাকে। তারা আরোও বলেছেন, সরকার তাদের ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত ইলিশের প্রজনন মৌসুম থাকার জন্য দেশের সব নদীগুলি থেকে ইলিশ মাছ ধরা বন্ধ করে রাখে, কিন্তু সরকার সকল জেলেদের তাদের সংসার চলানোর বিকল্প ব্যবস্থা করেনি। তাই অনেক জেলেরা এ ইলিশ মাছ ধরে থাকে।

সরকার বিকল্প ব্যবস্থা করেছে, এখন কথা হচ্ছে তাই সব জেলের কাছে এ বিকল্প ব্যবস্থাটি পৌছেতে পারেনি। অনেক জেলেরা দেশের বিভিন্ন জাগায় থেকে আন্দোলন করে তারা দাবি তুলে ধরে, যাতে সরকারের বিকল্প ব্যবস্থা মধ্য তারা পরে। তবুও তাদের দাবি সরকারের কাছে সঠিকভাবে যাচ্ছে না, তাই অনেক জেলেরা রয়েছে কঠিন বাস্তবতার মধ্য জীবন যাপন করে।

বাংলাদেশের মধ্য পদ্মা নদীর ইলিশ অনেকের কাছে দামি। মাদারীপুরের শিবচর এলাকায় মধ্য পরেছে পদ্মা নদী সেখানেও রয়েছে দামি ইলিশ এর কদর দেশের সর্বত্র জাগায়।

এখানেও এ সময়ে ইলিশ মাছ ধরা সম্পুর্নভাবে বন্ধ করা যায়নি। তাই সঠিকভাবে সব জেলেদের কাছে পৌছ দিতে হবে তাদের সংসার চলানোর বিকল্প ব্যবস্থাটি।