মেইন ম্যেনু

‘সরকার কোরআন সুন্নাহবিরোধী কোনো আইন করবে না’

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, কোরআন সুন্নাহবিরোধী কোনো আইন প্রণয়ণ না করা সরকারের নীতিগত সিদ্ধান্ত। মুসলিম উত্তরাধিকার আইনে পুত্র সন্তান না থাকলে এবং একাধিক কন্যা সন্তান থাকলে সেক্ষেত্রে কন্যা সন্তানদের চাচা বা চাচাত ভাইদের সম্পত্তির অংশ পাওয়া সংক্রান্ত বিদ্যমান নিয়ম পরিবর্তন বা পরিবর্ধন করার কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই।

দশম সংসদের দ্বিতীয় বাজেট অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে মঙ্গলবার নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য মো. শওকত চৌধুরীর এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, মুসলিম পারসনাল ল ( শরীয়াহ) এপ্লিকেশন অ্যাক্ট ১৯৩৭ অনুয়ায়ী মুসলিমদের ক্ষেত্রে মুসলিম উত্তরাধিকার আইন অনুযায়ী একজন মৃত মুসলমান ব্যক্তির ওয়ারিশদের মধ্যে সম্পত্তির বিলি বন্টন হয়ে থাকে। কোনো মৃত ব্যক্তির রেখে যাওয়া ওয়ারিশদের মধ্যে কোনো পুত্র সন্তান না থাকলে এবং শুধুমাত্র একাধিক কন্যা সন্তান থাকলে ঐ কন্যা সন্তানদের চাচা বা চাচাত ভাইরা মৃত ব্যক্তির সম্পত্তির তিন ভাগের একভাগের মালিক হতে পারে, যদি মৃত ব্যক্তির পিতা জীবিত না থাকে। মন্ত্রী বলেন, মুসলিম আইন অনুয়ায়ী কন্যা সন্তানদের জন্য নির্ধারিত সম্পুর্ণ অংশই যেহেতু কন্যা সন্তানরা পাচ্ছে সেক্ষেত্রে তারা তিনভাগের এক ভাগ সম্পত্তি হতে বঞ্চিত হচ্ছে মর্মে ভাবার কোনো অবকাশ নেই। যেহেতু মুসলিম উত্তরাধিকার আইনের বিধান অনুযায়ী সম্পত্তির এরূপ বিলি বন্টন ব্যবস্থা, সেক্ষেত্রে সরকরের ভিন্নরূপ কোন সিদ্ধান্ত নেই। বিদ্যমান নিয়ম পরিবর্তন বা পরিবর্ধন করে কোন অধ্যাদেশ জারি করার কোন পরিকল্পনা সরকারের নেই।

এদিকে ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর টেবিলে উত্থাপিত এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী জানান, বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণার অব্যবহিত পূর্বে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে প্রচলিত ব্রিটিশ ভারত ও পাকিস্তান আমলে প্রণীত প্রায় ৩৬৪ টি আইন এখন পর্যন্ত বহাল রয়েছে।