মেইন ম্যেনু

‘সরকার সবার শয়নকক্ষে উপস্থিত থাকতে পারে না’

সরকারের পক্ষে সবার শয়নকক্ষে উপস্থিত থেকে নজরদারি করা সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছে ভারতের প্রশাসন। দেশটির সর্বোচ্চ আদালতে শিশু পর্নোগ্রাফি নিষিদ্ধের পক্ষে সরকারের অবস্থান তুলে ধরে সোমবার এ মন্তব্য করেন এ্যাটর্নি জেনারেল। খবর এনডিটিভির।

ভারতে পর্নোসাইট নিষিদ্ধের বিষয়ে করা এক পিটিশনের জবাবে সরকারের পক্ষে এ্যাটর্নি জেনারেল মুকুল রোহতাগি আদালতে পর্নোসাইট নিষিদ্ধের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ‘শিশু পর্নোগ্রাফি অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। আমরা একটি সর্বগ্রাসী রাষ্ট্রে পরিণত হতে পারি না।’

ভারতে সম্প্রতি ৮৫০টিরও বেশি পর্নোসাইট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শিশু পর্নোগ্রাফি রুখতেই এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। এভাবে বন্ধ না করলে ঘরে বসে যে কেউ শিশু পর্নোগ্রাফির সঙ্গে জড়িত হতে পারে বলেও মন্তব্য করেছেন এই আইনজীবী।

রোহতাগি বলেন, ‘সরকারের পক্ষে প্রত্যেক নাগরিকের শয়নকক্ষে উপস্থিত থেকে নজরদারি করা সম্ভব নয়।’

তিনি আদালতকে নিশ্চিত করেন যে, শিশু পর্নোগ্রাফি রুখতেই ওই সাইটগুলো বন্ধ করা হয়েছে। প্রাপ্ত বয়স্কদের পর্নো বন্ধ করা সরকারের উদ্দেশ্য নয় এবং সরকার এটা করবে না।