মেইন ম্যেনু

সহকর্মীর বিরুদ্ধে করা ৫৭ ধারার মামলা তুলে নিচ্ছেন ঢাবি শিক্ষক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. আবুল মনসুর আহাম্মদ নিজ বিভাগের সহকর্মী অধ্যাপক ড. ফাহমিদুল হকের বিরুদ্ধে দায়ের করা ৫৭ ধারার মামলা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। রোববার বিভাগীয় চেয়ারপারসন অধ্যাপক মফিজুর রহমান সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের একডেমিক কমিটির এক সভায় সিদ্ধান্ত হয়, ফাহমিদুল হক যদি গ্রুপে দেয়া তার স্ট্যাটাসের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তাহলে ড. আবুল মনসুর আহাম্মদ মামলা প্রত্যাহারের বিষয়টি বিবেচনা করবেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ড. ফাহমিদুল হক ফেসবুকে দেয়া তার পোস্টের জন্য দুঃখ প্রকাশ করলে আবুল মনসুর আহাম্মদ মামলাটি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেন।

উল্লখ্য, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের মাস্টার্স শিক্ষার্থীদের ফলাফল প্রকাশে বিলম্ব হওয়ার বিষয়কে কেন্দ্র করে ফেসবুকের একটি ‘ক্লোজ গ্রুপে’ মতামত প্রকাশ করেন বিভাগের অধ্যাপক ফাহমিদুল হক। এর জের ধরে গত ১২ জুলাই তার বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা দায়ের করেন একই বিভাগের অধ্যাপক আবুল মনসুর আহাম্মদ।

মামলার এজাহারে আবুল মনসুর আহাম্মদ অভিযোগ করেছিলেন, ফাহমিদুল হক লিখেছেন, আবুল মনসুরের কারণে মাস্টার্সের ফলাফল প্রকাশে দীর্ঘসূত্রতায় পড়েছে। যে কারণে বিভাগের আরেক অধ্যাপক গীতি আরা নাসরিন বিপদে ও হয়রানির মধ্যে পড়েছেন এবং বিভাগের একাডেমিক পরিবেশ কলুষিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কন্ট্রোলার অফিস ও প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে সামান্য একটি ঘটনাকে জটিল করার বিষয়ে অসামান্য অবদান রাখা এবং শত্রুতামূলক উদ্যোগ গ্রহণের জন্যও ফাহমিদুল তাঁকে (আবুল মনসুরকে) অভিযুক্ত করেছেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই