মেইন ম্যেনু

সাংবাদিকদের সাথে অশোভনীয় আচরন রানীরবন্দর উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের অফিসারের

মোহাম্মাদ মানিক হোসেন, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুর চিরিরবন্দরের রানীরবন্দর উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার মো: খায়রুল ইসলাম সাংবাদিকদের সাথে অশোভনীয় আচরন ও বেপরোয়া ব্যবহার করেন। দীর্ঘ আট বছর ধরে একই স্থানে চাকুরী করার সুবাদে নিজেকে সিয়ানা মনে করে। কাউকে তোয়াকা না করে নিজের খেয়াল খুশী মত অফিসে আসা যাওয়া করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এরি ধারাবাহিক তায় চিরিরবন্দর প্রেসক্লাবের সহ-সাংগাঠনিক সম্পাদক দয়াল চন্দ্র রায় ও সাংবাদিক মোহাম্মাদ মানিক হোসেন গতকাল (রবিারার) বেলা ১২ টায় সরজমিনে রানীরবন্দর উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে গেলে তাকে অফিসে পাওয়া যায়নি এবং অফিস ছেড়ে চলে গেছে বলে অফিসের এক কর্মচারীর জানায়। পরে ওই কর্মচারী সাংবাদিকের পরিচয় পেয়ে তার স্যার কে মুঠোফোনে জানালে তিনি কিছুক্ষন পর অফিসে ফিরে আসেন।

এবং তার কাছে তথ্য চাইতে গেলে তিনি বলেন, আপনারা কে? আপনারা কি আমার দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসার যে আপনাদের তথ্য দেবো। সাংবাদিক হলে আইডি কার্ড দেখান, কার্ড না দেখালে আপনারা পাবলিক, ওষূধ নিয়ে চলে যান। কথা কাটাকাঠির এক পর্যায়ে সাংবাদিকদের সামনে তিনি নিজেকে ভুয়া বলে দাবী করে। এবং জোরালো দাবি করেন আমার অফিস সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ২ টা ৩০ মিনিট পযু›ত। তবে আমি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে দুপুর ১ টার দিকে চলে যাই।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা অফিসার মো:শহিদুজ্জামার এর সাথে বিষয়টি নিয়ে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান অফিস টাইম পযুন্ত থাকার নিয়ম কিন্তু সাংবাদিকদের সাথে এরকম আচরন করা তার ঠিক হয়নি।