মেইন ম্যেনু

সাংস্কৃতিক কর্মীর ওপর হামলার প্রতিবাদে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি বাসুদেব রায়ের ওপর হামলার চতুর্থ দিনেও গ্রেপ্তার হয়নি ছাত্রলীগের কর্মী ছাদ্দাম হোসেন সজীব ও তার সহযোগী। তাই এর প্রতিবাদে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সংগঠনটি।

আজ শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রাকসু ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়। এসময় রাবি কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক কণিকা গোপ, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি আয়তুল্লাহ খোমেনীসহ আরো অনেক সাংস্কৃতিক কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে রাবি কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোটের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি দেবশ্রী মণ্ডল বলেন, ‘বাসুদেব রায়ের ওপর হামলার ঘটনায় রাবি সাংস্কৃতিক জোট দোষীদের গ্রেপ্তারে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছি। কিন্তু ঘটনার ৪ দিন পার হলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে তেমন কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। আমাদের দাবি এবং বাসুদেব রায়ের সুবিচার না হলে আগামী দিন গুলোতে কঠোর আন্দোলনে যাব।’

দেবশ্রী মণ্ডল দাবি তুলে ধরে আরো বলেন, ‘আমরা উপাচার্য বরাবর যে স্মারকলিপি দিয়েছি সেখানে দুই দফা দাবি জানানো হয়েছে। প্রথমত, ২৪ ঘন্টার মধ্যে ছাত্রলীগ কর্মী সাদ্দাম হোসেন সজীব ও তার সহযোগীকে গ্রেফতারসহ তাদের ছাত্রত্ব বাতিল করা। এবং দ্বিতীয়ত, সাংস্কৃতিক কর্মীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

আগামীকাল শনিবার সকাল ১০টায় রাকসু ভবন থেকে শুরু করে শহীদুল্লাহ্ কলা ভবন, রবীন্দ্র কলা ভবনের সামনে, প্রথম ও চতুর্থ বিজ্ঞান ভবনের মাঝখানে এবং চারুকলা বিভাগের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে দেবশ্রী মণ্ডল বলেন, ‘বাসু দেব সাংস্কৃতিক কর্মী ছাড়াও সে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী। সে যদি সাধারণ শিক্ষার্থী হয়ে বিচার না পায় তাহলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা কোথায়? তাই আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ বাড়িয়ে আন্দোলনকে আরো বেগবান করা হবে।’ এ ঘটনায় এখনও কোনো কেস হয়নি বলেও তিনি জানান।

তাদের এ আন্দোলনে সংহতি জানিয়েছে রাবি অনুশীলন নাট্যদল, ছাত্র ফেডারেশন, ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্রফ্রন্ট, বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রী এবং চলচ্চিত্র বিষয়ক সংগঠন ‘ম্যাজিক লণ্ঠন।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাংলাদেশ গণশিল্পী সংস্থা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা-এর মহড়া কক্ষে বাসু দেবকে পিটিয়ে পা ভেঙে ছাত্রলীগ নামধারী সাদ্দাম হোসেন সজীব ও তার সহযোগী। আহত বাসু দেব পাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের স্নাতকোত্তর পর্বের শিক্ষার্থী। বর্তমানে বাসু দেব রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৩১নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।