মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরার দেবহাটায় ভেড়ীবাধ ঝুকিপূর্ন, নিন্মাঞ্চল প্লাবিত

সাতক্ষীরার দেবহাটায় গত কয়েকদিনের অবিরাম বর্ষনে ইছামতি নদীর ভেড়ীবাধের অধিকাংশ জায়গা হুমকির সম্মুখীন হয়ে পড়েছে। জনজীবন হয়ে পড়েছে বিপর্যস্ত। সাধারন মানুষ ঘর থেকে যেমন বের হতে পারছেনা, তেমনি সাধারন জীবনযাত্রা অচল হয়ে পড়েছে। অপরদিকে অবিরাম বর্ষনে উপজেলার অধিকাংশ মৎস্য ঘের ও নিন্মাঞ্চল ডুবে গেছে। অনেক কাচা ঘরবাড়ি ভেঙ্গে পড়েছে। যার কারনে মানুষেরা আর্থিক ক্ষতির পাশাপাশি সবদিক মিলিয়ে দারুন ভোগান্তির মধ্য দিয়ে জীবন অতিবাহিত করছে। আবার অন্যদিকে অতি বর্ষনে দেবহাটার ইছামতি নদীর ভেড়ীবাধের কয়েকটি জায়গা ঝুকিপূর্ন হয়ে পড়েছে।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, গত ঈদুল ফিতরের পরেরদিন থেকে সারাদেশের ন্যায় দেবহাটাতেও চলছে বর্ষন। তবে সেই বর্ষন গত কয়েকদিন যাবত অবিরতভাবে হচ্ছে। তার মধ্যে গত বুধবারের যে ঘূর্নিঝড়ের সম্ভাবনা ছিল সেখান থেকে মানুষের মধ্যে ভীতির পাশাপাশি চলছে জীবন বাচানোর সংগ্রাম। আল্লাহর অশেষ রহমতে সেই ঘূর্নিঝড় থেকে আমাদেরকে বাচালেও বর্তমানে হচ্ছে অবিরাম বৃষ্টিপাত। এর ফলে উপজেলার অধিকাংশ ঘের ও নি¤œাঞ্চল পানির নিচে চলে যাওয়ায় মৎস্য চাষীদের পথে বসার উপক্রম হয়েছে। অনেক নি¤œাঞ্চল ডুবে যাওয়ার কারনে কাচা ঘরবাড়ি ভেঙ্গে অনেক মানুষ নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। তবে সরকারীভাবে এখনো পর্যন্ত সাহায্য সহযোগীতা বা তাদের পাশে দাড়ানোর কোন খবর পাওয়া যায়নি।

দেবহাটা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা নাজমুল হুদা জানিয়েছেন, গত কয়েকদিনের অবিরাম বর্ষনে উপজেলার প্রায় ৪ হাজার হেক্টর জমির মৎস্য ঘের তলিয়ে গেছে। তবে তিনি ক্ষতির পরিমান নির্দিষ্টভাবে জানাতে পারেননি। পরে হিসাব করে এই তথ্য জানানো যাবে বলে তিনি জানান। যদি বর্ষা না থামে তাহলে ক্ষতির পরিমান আরো বাড়বে এবং জনগনের জানমালের ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা আরো বাড়বে বলে সচেতনমহলের ধারনা।