মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরা জেলা জামায়াতের আমীর খালেক ম-ল গ্রেপ্তার

সাতক্ষীরা জেলা জামায়াতের আমির ও সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মওলানা আবদুল খালেক ম-লকে মানবতা বিরোধী অপরাধ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে আন্তর্জাতিক অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালে তাকে গ্রেফতারের আবেদন জানানো হলে আদালত সম্মতি দেন।

এরপরই বিকেলে তাকে গ্রেফতারের নির্দেশনা দিয়ে সাতক্ষীরা কারাগার কর্তৃপক্ষের কাছে বার্তা পাঠানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের সহকারী পরিচালক আবদুর রজ্জাক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, খালেক ম-ল ইতোপূর্বে গ্রেফতার রয়েছেন অন্যান্য মামলায়। এবার তাকে মানবতাবিরোধী মামলায় ফের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

এর আগে ১৬ জুন মঙ্গলবার ভোরে তার বাড়ি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার খলিলনগর মহিলা মাদ্রাসায় নাশকতার লক্ষ্যে কয়েকজন সহযোগিকে নিয়ে গোপন বৈঠককালে গ্রেফতার হন তিনি। সে সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

প্রসঙ্গত, জেলা জামায়াতের এই শীর্ষ নেতা জামায়াতের কেন্দ্রীয় সুরা সদস্য। ১৯৭১ এর মুক্তিযুদ্ধকালীন রাজাকারবাহিনীর নেতৃত্ব দিয়ে কয়েকটি হত্যাসহ হিন্দু পরিবারের জমি ও বাড়ি দখল করেন তিনি। ১৯৭১ সালে শিমুলবাড়িয়া গ্রামের রুস্তম আলিসহ পাঁচজনকে হত্যার দায়ে ২০০৯ সালের ২ জুলাই তার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের মামলা করেন রুস্তম আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম গাজি। মামলাটি এখনও আন্তর্জাতিক মানবতাবিরোধী অপরাধ ট্রাইব্যুনালে রয়েছে।

এছাড়া, একাত্তরে কাথন্ডা গ্রামের আবুল হোসেন গাজি, একই এলাকার অহেদ আলি, বলদঘাটার সামসুর রহমান, খলিলনগরের মনসুর সরদার ও ঘোনা বাঁশিয়াপাড়ার তাহের আলির ছেলেকে হত্যার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।