মেইন ম্যেনু

সাত খুন মামলা: তারেক সাঈদের আবেদন খারিজ

নারায়ণগঞ্জের চাঞ্চল্যকর সাত খুনের ঘটনায় দায়ের হওয়া একটি মামলার অভিযোগ গঠন বাতিল চেয়ে র‌্যাবের সাবেক কর্মকর্তা তারেক সাঈদের করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমির হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট গোলাম কিবরিয়া। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শেখ মো. মনিরুজ্জামান কবির।

তারেক সাঈদের এ আবেদনের শুনানী শেষে আদালত তার আদেশে বলেন ‘নট প্রেস রিজেক্ট’। অর্থাৎ উত্থাপিত হয়নি মর্মে আবেদনটি খারিজ করা হলো। ২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংকরোডের ফতুল্লার লামাপাড়া থেকে সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, আইনজীবী চন্দন সরকারসহ ৭ জনকে অপহরণ করা হয়। তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদীতে তাদের লাশ পাওয়া যায়।

এরপর নজরুল ও তার চার সহযোগীকে হত্যার ঘটনায় তার স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বিউটি একটি এবং চন্দন সরকার ও তার গাড়িচালক ইব্রাহিমকে হত্যার ঘটনায় বিজয় কুমার অন্য মামলাটি দায়ের করেন। সে মামলাগুলোর মধ্যে সেলিনার মামলার অভিযোগ গঠন বাতিল চেয়ে করা আবেদন আজ খারিজ করে দিলো হাইকোর্ট।

তদন্ত শেষে গত ৮ এপ্রিল নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। চলতি বছর ৮ ফেব্রুয়ারি দুই মামলায় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে আদালত। বিউটির করা এ মামলায় অভিযোগ গঠনের আদেশ বাতিল চেয়ে ২৪ ফেব্রুুয়ারি হাইকোর্টে এই আবেদন করে তারেক সাঈদ। এর আগে গত ১৫ মার্চ আইনজীবী চন্দন সরকারের জামাতা বিজয় কুমার পালের করা মামলা বাতিল চেয়ে তারেক সাঈদের করা আবেদন হাইকোর্ট খারিজ করে দেন।