মেইন ম্যেনু

সাত বছর পর দেশে ফিরলেন তিন বাংলাদেশি নারী

সাত বছর আগে ভারতে পাচার হওয়া তিন বাংলাদেশি নারী অবশেষে শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) দেশে ফিরতে পেরেছেন। এদিন বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ‘ট্রাভেল পারমিটের’ মাধ্যমে তাদের ফেরত দেয় ভারতীয় পুলিশ।

বিকেল ৪টার সময় ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদেরকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

ফেরত আসারা হলেন-খুলনার জেলার ৪ নম্বর ঘাট এলাকার আব্দুল আজিজের মেয়ে কুলসুম বেগম (২২), নড়াইল জেলার নাড়াগাতি থানা এলাকার নাসির সর্দারের মেয়ে রূপা খাতুন (২৬) ও খুলনার রূপসা থানার ক্লাব রোড এলাকার মহসিন শেখের মেয়ে নাসরিন সুলতানা (২৩)।

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ফেরত আসা নারীদের বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। থানা থেকে বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতির যশোর শাখা তাদেরকে গ্রহণ করে পরিবারের কাছে পৌঁছে দেবে।

যশোর মহিলা আইনজীবী সমিতির কর্মকর্তা অ্যাডভোকেট নাসিমা খাতুন জানান, গরিব পরিবারের মেয়ে হওয়ায় ভালো কাজের সন্ধানে সাত বছর আগে দালালের মাধ্যমে অবৈধপথে ভারতের কেরালা গিয়েছেল এই তিন নারী।

অবৈধভাবে বসবাসের অভিযোগে ভারতীয় পুলিশ তাদের আটক করে। সেখানে ৩ মাস ১০ দিন কারাভোগের পর কৈকাল নামে একটি এনজিও তাদের ছাড়িয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। এত দিন তারা সেখানেই ছিলেন। দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দেওয়া বিশেষ ‘ট্রাভেল পারমিটে’ মাধ্যমে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।