মেইন ম্যেনু

সাবধান! খালি পেটে যেসব খাবার মোটেও খাবেন না

খালিপেটে সব ধরনেক খাবার খাওয়া উচিত নয়। কিন্তু কী খাবেন, আর কী খাবেন না, জানেন কি? এমনও কিছু খাবার এই তালিকায় রয়েছে, যেগুলি এমনিতে শরীরের পক্ষে যথেষ্ট উপকারী হলেও খালি পেটে খাওয়া খুবই ক্ষতিকারক। তাই এসকল খাবার কখনই খালিপেটে খাবেন না। খবর এবেলা’র।

১. কলা— তাৎক্ষণিক শক্তি জোগান দেওয়ার জন্য কলার জুড়ি মেলা ভার। কলার অনেক পুষ্টিগুনও রয়েছে। কিন্তু খালি পেটে কখনও কলা খাবেন না। খালি পেটে কলা খেলে শরীরে ম্যাগেনসিয়ামের পরিমাণ বেড়ে গিয়ে রক্তে ম্যাগনেসিয়াম এবং ক্যালসিয়ামের মাত্রায় অস্বাভাবিক তারতম্য ঘটে, যার ফলে শারীরীক সমস্যা দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

২. দুধ এবং সোয়াবিন মিল্ক— দুধ হোক অথবা সোয়াবিন মিল্ক। এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। কিন্তু খালি পেটে খেলে দুধে থাকা প্রোটিন শরীর পুরোমাত্রায় গ্রহণ করতে পারে না। ফলে, খালি পেটে দুধ খেলে সবসময়ে পাউরুটি, বিস্কুটের সঙ্গে খান।

৩. চা এবং কফি- সকালবেলা ঘুম থেকে ওঠার পরে এক কাপ চা অথবা কফি না খেলেই নয়। কিন্তু কখনওই খালি পেটে এই চা-কফি খাবেন না। কারণ, চা-এর মধ্যে অ্যাসিডের উপস্থিতি যথেষ্ট বেশি পরিমাণে থাকে। আর কফিতে থাকে ক্যাফেইন। খালি পেটে খেলে এই অ্যাসিড এবং ক্যাফেইন পাকস্থলীর আস্তরণের ক্ষতি করে দেয়। ফলে আর কিছু না হোক, খালি পেটে চা অথবা কফি খাওয়ার আগে অন্তত এক গ্লাস জল খেয়ে নেবেন।

৪. খুব বেশি মশলাদার খাবার- হয়তো আপনি জানেন। কিন্তু তাও আপনাকে আমরা মনে করিয়ে দিচ্ছি। খালি পেটে মশলাদার খাবার, ‘নৈব নৈব চ।’ কারণ, এর পরিণতি ভয়ঙ্কর হতে পারে। খালি পেটে মশলাদার খাবার খেলে পাকস্থলীর স্বাভাবিক অ্যাসিডগুলির উপর প্রভাব পড়ে। এমনকী পাকস্থলীতে অ্যাসিডিক প্রতিক্রিয়াও হতে পারে। যাঁর জেরে পেটে টান ধরা বা ব্যথা হতে পারে।

৫. টমোটো- খেতে যতই ভালো লাগুক না কেন, খালি পেটে টমোটো কিন্তু যথেষ্ট ক্ষতিকারক। খালি পেটে খেলে টমোটোয় থাকা অ্যাসিডের সঙ্গে গ্যাসট্রোইনটেস্টাইনাল অ্যাসিড মিশে গিয়ে এক ধরনের জেল তৈরি হয়, যা থেকে পাকস্থলীতে পাথর পর্যন্ত জমতে পারে।

৬. সোডা বা কোল্ড-ড্রিংক – সোডা বা কোল্ড-ড্রিংকে যে চিনি বা আর্টিফিশিয়াল সুইটনার থাকে , খালি পেটে খেলে সেগুলি শরীরের পক্ষে যথেষ্টই ক্ষতিকারক হতে পারে। কারণ, এই আর্টিফিশিয়াল সুইটনারের মধ্যে বিভিন্ন কার্বোনেটেড অ্যাসিডস থাকে, যেগুলি পাকস্থলীর অ্যাসিডের সঙ্গে মিশে গিয়ে পেট গোলানো অথবা বমি, বমি ভাব এবং বুক-জ্বালাও শুরু হতে পারে।