মেইন ম্যেনু

সাবধান! ফেসবুকে বন্ধুর ছদ্মবেশী ভাইরাস

যারা ইন্টারেন্ট ব্যবহার করেন পিসি অথবা মোবাইলে, তারা প্রায় সময় ভাইরাস নিয়ে নানা ভোগান্তিতে পড়েন। এ যেন উটকো একটি ঝামেলা। ভাইরাস অ্যাটাক করা মানেই আপনার শখের বা দরকারি অনেক ফাইল নষ্ট করে দিল। আবার পিসি অথবা মোবাইলেরও বারোটা বাজিয়ে তেরটাও বাজিয়ে ছাড়ে।

এ জন্য বাজারা কিনতে পাওয়া এন্ট্রি-ভাইরাসের আশ্রয় নিতে হয়। কিন্তু, সব এন্ট্রি-ভাইরাস কি আর সব ভাইরাস প্রতিশোধক? না। যার ফলে এই ঝামেলাটা আরও বেশিই হচ্ছে। তবে ইন্টারেট ব্যবহার করার সময় একটু সাবধানতা অবলম্বন করলে অনাকাঙ্ক্ষিত এমন ঝামেলা এড়িয়ে চলা সম্ভব।

এদিকে ইন্টারনেট ব্যাবহারকারীরা বর্তমানে অনলাইনে নিরাপত্তা এত বাড়িয়ে নিয়েছেন যে কারণে ভাইরাসের আক্রমণ আর আগের মত নেই। তবে, এবার সোশ্যাল মিডিয়াতেই ভাইরাসের আতঙ্ক।

যেমন, ফেসবুকে দেখলেন বন্ধুর নোটিফিকেশন। ক্লিক করতে গেলেন, ব্যাস আপনার কম্পিউটারে ঢুকে পড়বে ভাইরাস।

ফেসবুকের মাধ্যেমে এখন এভাবেই ভাইরাস প্রেরকরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে বলে দাবি করছে ন্যাসকম। কী ভাবে? ফেসবুকে পাঠানো বন্ধুর হাই-হ্যালোকে নির্ভেজাল মনে করলেও আসলে ওই নোটিফিকেশনের সঙ্গে জুড়ে আছে ভাইরাস।

সাধারণত গুগল ক্রোমেই এই ধরনের ভাইরাসের আক্রমণ বেশি হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। তবে, পাশাপাশি প্রভাবিত হচ্ছে ফায়ারফক্স থেকে ওপেরা মিনির মতো সফটওয়্যারও। তাই ফেসবুক খুললে যে সব নোটিফিকেশন আসে সেগুলি সাবধানে দেখে ক্লিক করা উচিত বলেই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।