মেইন ম্যেনু

সামান্য চর্চায় সুন্দর থাকুন

কাজের তাগিদে সকালে ঘুম থেকে ওঠা। দিনশেষে ক্লান্তির চাপ নিয়ে ঘরে ফেরা। প্রয়োজনীয় কাজ সামলাতেই হয়ে যায় ঘুমানোর সময়। ত্বকের যত্নের কথা একদমই আর মনে থাকে না। নিয়মিত অবহেলার ফলে ত্বকে দেখা দেয় নানা সংক্রমণ, বয়সের ছাপ ইত্যাদি। অথচ আপনার রুটিনে সামান্য পরিবর্তন আনলেই থাকতে পারেন সুস্থ আর সুন্দর।

পরিপূর্ণ ঘুম

শরীর সুস্থ ও সুন্দর রাখতে ৮ ঘণ্টার পরিপূর্ণ একটি ঘুম প্রয়োজন। ত্বকের উপরেও ঘুমের প্রভাব রয়েছে। যখন আমরা ঘুমিয়ে পড়ি তখন আমাদের ত্বক জেগে ওঠে নতুন কোষ সৃষ্টি ও পরের দিনের জন্য ত্বককে তৈরি করতে। এই সময়টাতে ত্বকের কাজ যাতে বাধাগ্রস্থ না হয়, তাই ঘুমাতে যাওয়ার আগে ত্বক ভালোভাবে পরিষ্কার করতে হবে।

মুখ ধোয়া

সারাদিনের কাজে আপনার ত্বকে মরা কোষের সৃষ্টি হয়, প্রচুর তেল এবং ময়লা জমে। ঘুমাতে যাওয়ার আগে আপনার ত্বকের উপযোগী ক্লিনজার দিয়ে ত্বক ধুয়ে নিন। রাতে মেকআপ নিয়ে ঘুমালে লোমকূপগুলো বন্ধ হয়ে থাকে। ফলে ত্বকের কাজ করা সম্ভব হয় না। তাই নিয়মিত ঘুমাতে যাওয়ার আগে ত্বক পরিষ্কার করা উচিৎ। যত তাড়াতাড়ি আপনি এ কাজগুলো শুরু করবেন, আপনার ত্বকে বয়সের ছাপ তত দেরিতে পড়বে।

ত্বকের আদ্রতা বজায় রাখুন

রাতে ত্বকের পুনর্গঠনের কাজগুলো চলার ফলে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। তাই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। দিনে রূপচর্চার ফলে আপনার ত্বক চারপাশের ক্ষতিকারক উপাদান থেকে রক্ষা পায় এবং রাতে রূপচর্চার ফলে ত্বকের পুনর্গঠন ভালোভাবে হয়। তাই প্রতিদিন রাতে ত্বকের অল্প যত্নে নিজেকে রাখুন স্নিগ্ধ আর সতেজ ।