মেইন ম্যেনু

সারা সপ্তাহ ওজন কমাতে আজ রাতে করুন এই কাজগুলো

ওজন কমাতে হলে সারা সপ্তাহ-ই হিসেব করে খাওয়া এবং ব্যায়াম চালিয়ে রাখা জরুরী। কিন্তু আসলে কয়জন মানুষ সারা সপ্তাহ এদিকে মনোযোগ দিতে পারেন? পরিবারের প্রতি দায়িত্ব, কর্মক্ষেত্রের ঝামেলা সামলে আসলে ওজনের দিকে মনোযোগ দেওয়াই কঠিন। কিন্তু পরিকল্পনা করা থাকলে আসলে ব্যাপারটা তেমন কঠিন নয়। জেনে নিন শুক্রবারে কী কী কাজ করে রাখলে আপনি সারা সপ্তাহ-ই ওজন কমাতে পারবেন নিশ্চিন্তে।

১) ব্যায়ামের পরিকল্পনা করে রাখুন

অনেকেই ভাবেন, সময় পেলে সকালে উঠে একটু দৌড়ে নেবেন অথবা অফিস থেকে ফেরার পথে ঢুঁ মেরে আসবেন একবার। আসলে কিন্তু সেটা বেশিরভাগ সময়েই করা হয়ে ওঠে না, ফলে ব্যায়াম ছাড়াই শেষ হয় সপ্তাহটা।

খুব চিন্তাভাবনা করে এই সপ্তাহে কবে কী ব্যায়াম করবেন তা প্ল্যান করে ফেলুন। প্ল্যান করলেই শুধু হবে না, ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট রাখতে যেমন গুরুত্ব দেন আপনি, এই ব্যায়াম করার ক্ষেত্রেও তেমনই নিয়মানুবর্তী হতে হবে। শুক্রবার বসে এই প্ল্যান করুন, ইচ্ছে হলে আপনার কোনো বন্ধুকে নিয়েও প্ল্যান করতে পারেন যাতে আপনি ভুলে গেলেও তিনি আপনাকে ভুলতে না দেন।

তবে WebMD সাইটে পরামর্শ দেওয়া হয়, ব্যায়ামের প্ল্যান করার আগে ডাক্তারের সাথে কথা বলা দরকার, বিশেষ করে যদি আপনার হৃদরোগের ঝুঁকি থাকে অথবা আপনার ওজন অতিরিক্ত হয়। এক্ষেত্রে ফিটনেস ট্রেইনারের মতামত নেওয়া ভালো।

২) ধুয়ে রাখুন ব্যায়াম করার হ্যাম্পার

“ব্যায়ামের কাপড় ধোয়া নেই”- এই অজুহাত ব্যবহার করে যেন ব্যায়াম বাদ দিতে না পারেন তার জন্য শুক্রবারেই একসাথে সব ব্যায়ামের কাপড় ধুয়ে রাখুন। দৌড়ানোর প্যান্ট থেকে শুরু করে ইয়োগা করার ঢিলেঢালা পোশাক, মোজা, ঘাম মোছার তোয়ালে সবই ধুয়ে রাখুন ভালো করে। পরিষ্কার কাপড় পরে ব্যায়াম করতেও ভালো লাগবে।

৩) উপকরণ ঠিক করে রাখুন

ব্যায়াম করতে কাপড় ছাড়াও আরও কিছু উপকরণ দরকার হয়। ইয়োগা ম্যাট, দৌড়ানোর জুতো, ব্যায়ামের সময়ে গান শোনার ইয়ারফোন- এগুলো গুছিয়ে রাখুন শুক্রবারেই। জিমে নিয়ে যাবার ব্যাগটা গুছিয়ে রাখুন। আর যদি বাড়িতে ব্যায়ামের অভ্যাস থাকে তাহলে আপনার ডাম্বেল, ফিটনেস ভিডিওর সিডি এগুলো গুছিয়ে রাখুন।

৪) খাবারের পরিকল্পনা করুন

ওজন কমাতে শুধু ব্যায়াম নয়, খাবারও গুরুত্বপুর্ণ। সারা সপ্তাহ কী খাবেন, ক্যালোরি হিসেব করে এগুলো ঠিক করে রাখুন। বিভিন্ন স্বাস্থ্যকর রেসিপিও দেখে নিতে পারেন প্রয়োজন মনে করলে। প্রয়োজন হলে সে অনুযায়ী বাজারও করে ফেলুন। আগে থেকেই কিছু জিনিস রান্না করে ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন।

৫) লাঞ্চ প্যাক করে রাখুন

সারাদিনই যদি বাসার বাইরে কাটাতে হয় আপনাকে, তাহলে বাইরে না খেয়ে লাঞ্চ তৈরি করে নিয়ে যাবার অভ্যাসটি তৈরি করা ভালো। সম্ভব হলে শুক্রবার রাতেই কিছুটা সময় নিয়ে তৈরি করে রাখুন পাঁচ দিনের লাঞ্চে খাওয়ার সালাদ। শুক্রবার রাতে কিছুটা সময় নষ্ট হলেও সারা সপ্তাহ আপনাকে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে সাহায্য করবে এগুলো। এ ব্যাপারে বেশ কিছু উপকারি পরামর্শ পাওয়া যায় Green Plate Rule ওয়েবসাইট থেকে।

৬) এবার ঘুমিয়ে পড়ুন

সব ঠিকঠাক মতো গোছানো হয়ে গেলে সময়মত ঘুমিয়ে পড়ুন, এটা ওজন কমাতে কার্যকরী। ঘুমানোর আগে কিছুটা ইয়োগা করে শরীরটাকে রিল্যাক্স করে নিতে পারেন বা পড়তে পারেন ভালো কোনো বই। এতে ঘুমটা ভালো হবে। ঘুম ঠিকমতো না হলে ওজন বেড়ে যেতে পারে। আর তরতাজা শরীর নিয়ে সপ্তাহের প্রথম সকাল শুরু হলে আপনার মনটাও ভালো হয়ে যাবে।