মেইন ম্যেনু

সালথা উপজেলা প্রসাশনের হস্তক্ষেপে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী বাল্যবিবাহ রক্ষা

ফরিদপুরের সালথা উপজেলা প্রসাশনের হস্তক্ষেপে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী ইনছানা আক্তার বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল। ইনছানা আক্তার উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের মিরেরগট্টি গ্রামের মোঃ ইকতার মীরের মেয়ে ও গট্টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী ।

স্থানীয়ভাবে জানা যায়, ইনছানা আক্তার গট্টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেন। এমতবস্থায় বাবা-মা পাশের গ্রামে তাকে বিবাহ দেওয়ার জন্য শুক্রবার দুপুরে যাবতীয় আয়োজন করলে এলাকাবাসী উপজেলা প্রসাশনকে অবগত করেন।

বাল্যবিবাহের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বাস রাসেল হোসেন মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোসাঃ ডালিয়া মৌসুমী খানকে তৎক্ষনিক পুলিশসহ ঘটনাস্থলে পাঠান। আজ বিকেলে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও গন্যমান্যদের উপস্থিতিতে বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। এ ব্যবস্থা নেওয়ায় ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী ইনছানা আক্তার বাল্যবিবাহের হাত থেকে রক্ষা পান।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোসাঃ ডালিয়া মৌসুমী খান বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে ঘটনাস্থলে গিয়ে আমরা বাল্যবিবাহ বন্ধ করেছি। এসময় ইনছানা আক্তারের সাথে কথা বলার চেষ্টা করলেও সে মূখ খোলেনি। এ দিকে এলাকার গন্যমান্যদের উপস্থিতিেিত ইনছানার বাবা-মা ভূল স্বীকার করে মেয়েকে বিবাহ না দিয়ে পূর্নরায় স্কুলে পাঠানোর প্রতিক্ষা করেন।