মেইন ম্যেনু

সিনেমায় নয়, বাস্তবের এই হাল্ক সম্পর্কে জানলে সত্যিই অবাক হবেন!

সিনেমায় হাল্ককে অনেকেই দেখেছেন। সিনেমায় রূপ নেয়ার আগে মারভেলের বিখ্যাত কমিকসে তাকে অনুভব করেছেন অনেকেই৷ এমনিতে তিনি একজন সাধারণ মানুষ, কিন্তু কোনো বিপর্যয় দেখা দেয়ামাত্র মুহূর্তের মধ্যে যেন বিরাট চেহারার এই লোকটি হিংস্র হয়ে যায়। যেমন তার পেশিবহুল শরীর তেমনই উগ্র মেজাজ৷ মুখের গড়নও বদলে যায় আপনা-আপনি৷ তাকে সামনে থেকে দেখলেই যেন সবার কম্পন শুরু হয়ে যায়।

ঠিক যেন ডাক্তার জেকিল হয়ে যান মিস্টার হাইড৷ যদিও গল্পের হাল্ক মূলত একজন ভালো মানুষ তিনি মানুষের উপকার করে থাকেন। মিস্টার হাইডের মতো সাইকোপ্যাথ নন৷ বাস্তবেও নাকি এমন হাল্কের দেখা পাওয়া গিয়েছে৷ তবে এই হাল্ক আমেরিকায় নয়, তার সন্ধান পাওয়া গেল ইরানের মাটিতে৷ তার নাম সাজাদ ঘারিবি, বয়স মাত্র ২৪ বছর৷

খুব বেশি কিছু সাজাদ ঘারিবির সম্পর্কে জানা যায়নি৷ তবে এটুকু জানা গিয়েছে যে, তিনি একজন পাওয়ার লিফটার৷ ওজন ১৭৫ কেজি৷ যারা হাল্কের কাহিনি কিংবা সিনেমা দেখেননি, তাদের দৃষ্টিতে কিংবা তাদের দাবিমতো সাজাদ ঘারিবি নাকি হাল্ক নন৷ তিনি একেবারেই নরম গোছের মানুষ৷ মন খুব ভালো৷ যদিও এ সব তথ্যই পারস্য মতে৷

ছবি দেখে কেউ কেউ হয়তো এই সাজাদ ঘারিবির সঙ্গে আইএসের ‘জল্লাদ’কে গুলিয়ে ফেলবেন৷ কিন্তু না৷ সাজাদ ঘারিবি জল্লাদ নন, নিতান্তই একজন পাওয়ার লিফটার৷ আর সবাই জানে, পাওয়ার লিফটার, ওয়েট লিফটাররা পারতপক্ষে কোনো ঝামেলায় জড়াতে চান না৷ জঙ্গি কার্যকলাপে তো কখনো নয়!