মেইন ম্যেনু

সিনেমা বানাবেন চিত্রনায়ক নাঈম

ঢাকাই চলচ্চিত্রের একটি আলোকিত অধ্যায়ের সঙ্গে জড়িয়ে আছে নাঈম-শাবনাজের নাম। নব্বয়ের দশকে তুমুল জনপ্রিয় এ জুটি দীর্ঘদিনে হল মিডিয়া থেকে দূরে রয়েছেন। শোনা যাচ্ছে, তারা আবারো চলচ্চিত্রাঙ্গনে নিয়মিত হচ্ছেন। তবে এবার পর্দায় নয় বরং অন্তরালে থেকে কাজ করতে চান। জানা গেছে, চিত্রনায়ক নাঈম চলচ্চিত্র প্রযোজক ও নির্মাতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছেন।

প্রয়াত বরেণ্য পরিচালক এহতেশাম পরিচালিত চাঁদনী (১৯৯১) চলচ্চিত্রটি পূর্ণনির্মাণ করবেন নাঈম। নাঈম-শাবনাজ জুটির চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় এ সিনেমাটির মাধ্যমে। সে সময় চলচ্চিত্রটি দারুণ ব্যবসায়িক সফলতা পায়। এর পর এ জুটি বহু দর্শকপ্রিয় চলচ্চিত্র উপহার দিয়েছেন।

জানা যায়, এহতেশাম ১৯৬৭ সালে নাদিম-শাবানাকে নিয়ে নির্মাণ করেছিলেন চকোরি। এটি নির্মাণের দুই যুগ পর তিনি নির্মাণ করেছিলেন চাঁদনী। এবারে সেই সিনেমাটির দুই যুগ পর এবার চিত্রনায়ক নাঈম নিজেই নির্মাণ করতে যাচ্ছেন ছবিটি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বয়ং নাঈম। তিনি মিডিয়াকে জানিয়েছেন, ‘সময়োপযোগী গল্প নিয়েই ১৯৯১ সালের চাঁদনীর আধুনিক রূপ দিয়ে নির্মাণ হবে। এর গল্পের বিন্যাস, চিত্রনাট্য এবং নির্দেশনা আমারই থাকবে।’

এদিকে সিনেমাটির জন্য প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করবেন এক জোড়া নতুন মুখ। এ জন্য শুরু হয়েছে নতুন মুখ খোঁজার পালা। নাঈম জানান, যদি এর মধ্যে যোগ্য নতুন এক জোড়া মুখ পাওয়া যায় তবে আসছে অক্টোবর মাস থেকেই চাঁদনী চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু হবে।

নাঈম আরও জানান, তার নির্দেশনায় নির্মাণ পরিকল্পিত চাঁদনীতে তিনি একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয়ও করবেন। তবে শাবনাজ অভিনয় করবেন কিনা তা নিশ্চিত নয় এখনও। রিমেক চাঁদনী প্রযোজনা করবেন নাঈম নিজেই।

এ জুটি অভিনীত বহু দর্শকপ্রিয় চলচ্চিত্র রয়েছে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো সোনিয়া, জিদ, লাভ, দিল ইত্যাদি।

দর্শকপ্রিয় এ জুটিকে সর্বশেষ গত ঈদে মাছরাঙা টিভির একটি অনুষ্ঠানে দেখা গেছে। সুখী দম্পতি নাঈম-শাবনাজ দুই কন্যাসন্তানের পিতা-মাতা।