মেইন ম্যেনু

‘সিনেমা হলে রুমাল নিয়ে যাবেন’

নিয়তি’ ছবির গল্প এতটাই হৃদয়স্পর্শী যে ছবিটি দেখার পর অনেকেই হয়তো ফুঁপিয়ে কাঁদতেও পারেন। আর এজন্য ছবিটি হলে দেখতে যাওয়ার সময় টিস্যু অথবা রুমাল নিয়ে যাবেন

রবিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে ‘নিয়তি’ ছবির মুক্তি উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন নিয়তি’র বাংলাদেশি প্রযোজক জাজ মাল্টি মিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ তিনি বলেন, ‘নিয়তি’ ছবিটির কয়েক বছর আগে আগে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘পোড়ামন’ ছবিটি মুক্তি পায়। সেটি দেখেও দর্শক কেঁদেছিলেন। এছবির গল্পটিও অনেক হৃদয় ছোঁয়া। সে কারণে দর্শকদের চোখে পানি চলে আসবে বলে আমার মনে হয়। আর পোড়ামনের মতো এই ছবিটিও নির্মাণ করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত নির্মাতা জাকির হোসেন রাজু। নির্মাতা হিসেবে তার মুন্সিয়ানা সবাই জানেন। অসংখ্য সুপারহিট ছবির স্রষ্টা তিনি। এজন্য ছবির সফলতা নিয়ে আমি শতভাগ আশাবাদী।’

আজিজ বলেন, ‘প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ থেকে প্রথমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল ছবির টিকিটের সঙ্গে একটি করে রুমাল অথবা টিস্যু দেয়া হবে যাতে ছবি দেখা সময় দর্শকরা কাঁদলে চোখের পানি মুছতে পারেন। কিন্তু ছবির ডিস্ট্রিবিউশনের পরে হিসেব করে দেখা গেল এতগুলো হলে এত এত দর্শকদের জন্য সারাদেশে টিস্যু-রুমাল দেয়া সম্ভব না, এতে করে টিকিটের খরচা আরো বেড়ে যাবে। তাই আমি সবাইকে বলতে চাই যারা নিয়তি দেখতে যাবেন তারা যেন সঙ্গে টিস্যু অথবা রুমাল নিয়ে যান।’

‘নিয়তি’র অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ছবির দুই প্রধান অভিনয় শিল্পী আরেফিন শুভ এবং জলি। অন্যান্যের মধ্যে আরো ছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু, মুশফিকুর রহমান গুলজার, সোহানুর রহমান সোহান ছাড়াও চলচ্চিত্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ঠ আরো অনেকে।

ছবির সাফল্যের ব্যাপারে আশাবাদী হয়ে আরেফিন শুভ বলেন, ‘দর্শকরা ভালো গল্প, নির্মাণশৈলী পেলে অবশ্যই ছবি দেখতে হলে যান। যার প্রমাণ মিলেছে গেল ঈদে। ‘নিয়তি’ ছবির গল্প-নির্মাতা থেকে শুরু করে সবকিছুই এক কথায় অসাধারণ। আশা করছি ছবিটি দেখতে দর্শকরা হলে যাবেন।’

জলি বলেন, ‘নিয়তি’ আমার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ছবি। প্রথম ছবি ‘অঙ্গার’-এ অনেকগুলো ভুল ছিল আমার অভিনয়ে। সেসব শুধরে নিয়ে অনেক মনোযোগ দিয়ে নিয়তি ছবিতে কাজ করেছি। আশা করছি দর্শকরা ছবিটি সাদরে গ্রহণ করবেন এবং আমাকে আগামীতে আরো ভালো কাজ করার প্রেরণা যোগাবেন।’

এদিকে, গেল ১০ জুন নিয়তি ছবিটি কলকাতায় মুক্তি পায়। সেখানেও ‘নিয়তি’ ছবিটি সকলের প্রশংসা কুড়ান বলে দাবি করেছেন ছবির নির্মাতা জাকির হোসেন রাজু। তিনি বলেন, ‘কলকাতায় শুভ-জলিকে তেমন কেউ চিনতো না। কিন্তু ‘নিয়তি’ মুক্তির পর তাদেরকে সেখানকার দর্শকরা ভালোভাবে গ্রহণ করেছেন। একইসঙ্গে ছবিটি সেখানে বেশ ভালোই ব্যবসা করেছ। ছবির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পাঁচটি গানও রয়েছে। সবমিলিয়ে বাংলাদেশে ‘নিয়তি’ ছবিটি ব্যবসায়িক সাফল্য নিয়ে আমি শতভাগ আশাবাদী।’

‘নিয়তি’ ছবিটি প্রায় শতাধিক হলে মুক্তি পাবে আগামী ১২ আগস্ট। ছবিটি প্রযোজনা করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া ও কলকাতার এসকে মুভিজ। ‘নিয়তি’ ছবিতে শুভ-জলি ছাড়া আরো বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঈশানী, রেসি, মৌসুমী সাহা, সুপ্রিয় দত্ত।