মেইন ম্যেনু

সিরিয়ার প্রতিবেশী দেশগুলোকে সহায়তা দেবে বিশ্ব ব্যাংক

যুদ্ধ আর সংঘাতের কারনে সিরিয়া থেকে প্রতিবেশী দেশগুলোতে আশ্রয় নিয়েছে বহু মানুষ। তারা নিজ দেশ থেকে পালিয়ে এসব দেশে আশ্রয় নিয়েছে। সিরিয়ার এসব শরণার্থীকে যেসব প্রতিবেশ দেশ সবচেয়ে বেশি আশ্রয় দিয়েছে এমন দেশগুলোকে সহায়তা দেবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। এমনটাই জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা বিবিসি।

সিরিয়ার শরণার্থী সমস্যা সমাধানে এর প্রতিবেশী দেশগুলোকে বিশেষ সহায়তা দেওয়ার পরিকল্পনা করছে বিশ্ব ব্যাংক। এর মধ্যে লেবানন, জর্ডান ও অন্যান্য উপসাগরীয় দেশগুলোকে ন্যুনতম সুদে ঋণ দিয়ে শরণার্থীদের সহায়তার ব্যবস্থা করাই এই পরিকল্পনার মূল উদ্দেশ্য। বিশ্বব্যাংকের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

টানা কয়েক বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধের কারণে সিরিয়া থেকে সবচেয়ে বেশি মানুষ আশ্রয় নিয়েছে পার্শ্ববর্তী লেবানন, তুরস্ক এবং জর্ডানে।

বর্তমানে লেবাননের মোট জনসংখ্যার ত্রিশ শতাংশ এবং জর্ডানের বিশ শতাংশ মানুষ সিরিয়ার উদ্বাস্তু। ফলে এসব দেশের অর্থনীতিতে মারাত্মক চাপ সৃষ্টি করছে শরণার্থী ইস্যু। আর এই সমস্যা সমাধানে সাহায্য করতে চায় বিশ্বব্যাংক।

বিশ্ব ব্যাংকের পরিকল্পনা অনুযায়ী মূলত লেবানন ও জর্ডানকে ন্যুনতম সুদে ঋণ দেয়া হবে। কিন্তু এই পরিকল্পনার প্রধান সমস্যা হচ্ছে এই দুটি দেশই মধ্যম আয়ের দেশ। ফলে বিশ্ব ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী তাদের স্বল্প সুদে ঋণ দেয়া যাবে না।

তারা কেবলমাত্র অনুন্নত দেশসমূহকেই নুন্যতম সুদে ঋণ দিতে পারে। তবে বিশ্বব্যাংক চায় এসব প্রতিবেশি দেশগুলো বিশ্বব্যাংকের ঋণ সুবিধা নিয়ে নিজেদের দেশের এসব শরণার্থীদের সহায়তা করতে পারবে। কিন্তু লেবানন এবং জর্ডান বিশ্ব ব্যাংকের এই প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি।