মেইন ম্যেনু

সিরিয়ায় ব্রিটেনের প্রথম সফল বিমান হামলা

বৃহস্পতিবার সিরিয়ায় বিট্রিশ বোমারু বিমান তাদের প্রথম হামলা চালিয়েছে। সরকরি একটি সূত্র জানিয়েছে, আইএসের বিরুদ্ধে বিমান হামলা চালানোর পরিকল্পনাকে কেন্দ্র করে বিট্রিশ পার্লামেন্টে ভোট গ্রহণের কয়েক ঘন্টা পরেই ওই হামলা চালানো হয়েছে।

ওই সূত্রটি আরো জানিয়েছে, টর্নোডো বিমান সাইপ্রাসের আরএএফ আকরোটিরি বিমান ঘাঁটি থেকে সিরিয়ায় বিমান হামলা চালিয়েছে। হামলা চালানোর পর বিমানটি আবার ঘাঁটিতে ফিরে এসেছে বলেও জানিয়েছি সূত্রটি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রটি জানিয়েছে, ‘সিরিয়ায় একটি বিমান হামলা চালানো হয়েছে।’ জাতীয় নিরাপত্তার বরাত দিয়ে ওই সূত্রটি জানিয়েছে, কয়টি অভিযান চালানো হয়েছে এবং বিভিন্ন তথ্য সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

তবে সাইপ্রাস থেকে রয়টার্সের এক প্রতিবেদক জানিয়েছেন, সাইপ্রাসের একটি ঘাঁটি থেকে চারটি বিমান সিরিয়ার অভিযানের জন্য পাঠানো হয়েছিল। চারটি বিমানই তাদের সফল অভিযানের পর পুণরায় ঘাঁটিতে ফিরে এসেছে।

ইরাকে অভিযান চালানোর এক বছর পর আরএএফ একরোটিরি থেকেই আবারো সিরিয়ার অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। আর বুধবার ব্রিটেনে ভোট গ্রহণের পর ব্রিটিশ অভিযানকে বিস্তৃত করে সিরিয়ায় বিমান হামলা চালানো হচ্ছে।

টানা ১০ ঘণ্টার উত্তেজনার সমাপ্তি ঘটেছে পার্লামেন্টে ভোট গ্রহণের পর। সেখানে ৩শ ৩৭ জন পার্লামেন্ট সদস্যর মধ্যে ২শ ২৩ জনই সিরিয়ায় ব্রিটিশ হামলা চালানোর পক্ষে ভোট দিয়েছে।

ফ্রান্স এবং যুক্তরাষ্ট্র ইতোমধ্যেই সিরিয়ায় বোমা হামলা শুরু করেছে। এখন ব্রিটেনও এই দলে যোগ দিয়েছে।