মেইন ম্যেনু

সিরিয়া প্রসঙ্গে সৌদি-রাশিয়া প্রধানের আলোচনা

সিরিয়া প্রশ্নে শান্তিপূর্ণ সমাধানের উদ্দেশ্যে সৌদি আরবের বাদশা সালমানের সঙ্গে কথা বলেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন। দুই নেতার ফোনালাপে আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও জাতিসংঘে শান্তি প্রস্তাবনা বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে ক্রেমলিন থেকে জানানো হয়েছে। এছাড়াও কথিত আইএসআইএস’র বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সহযোগিতা বৃদ্ধি ব্যাপারেও দুই নেতার আলাপ হয়েছে বলেও জানা যায়।

সৌদি আরবের রাজতন্ত্র নিয়ন্ত্রিত বার্তা সংস্থা দ্য সৌদি প্রেস জানায়, ‘পুতিন বাদশা সালমানকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এবং মৃত হাজিদের প্রতি শোক প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি দুই দেশের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়ন এবং আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করার প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেন তারা।’

২০১১ সালে সিরিয়া কলহের শুরু হওয়া থেকে বর্তমান যুদ্ধ পরিস্থিতি পর্যন্ত পুরো সময়ই রাশিয়া সিরিয়ার পাশে ছিল। যদিও সরাসরি মাঠে অংশগ্রহন না করলেও আন্তর্জাতিক নীতিনির্ধারক মহলে সিরিয়ার পক্ষে অনেকবারই রাশিয়া অবস্থান নিয়েছে। সর্বশেষ পরিস্থিতির অংশ হিসেবে রাশিয়া তার দীর্ঘদিনের মিত্র বাশার আল আসাদের পাশে সেনা সহায়তা নিয়ে হাজির হবে বলেও জানা যায়। শুধু তাই নয়, রাশিয়া ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে থেকে লড়াইয়ে প্রস্তুত এই প্রস্তাবনাও দেয়া হয়েছে পুতিনের পক্ষ থেকে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার আসাদ বিদ্রোহীদের সহায়তায় ৫০০ মিলিয়ন ডলারের এক প্রকল্প চালু করেছে। এই প্রকল্পের আওতায় আসাদ সরকারকে উৎখাতে বিরোধী শিবিরকে সকল প্রকাশ সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সেই সহায়তার অংশ হিসেবে ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ায় একদল প্রশিক্ষিত যোদ্ধা পাঠিয়েছে। যদিও আন্তর্জাতিক মহলের দাবি, যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো এই যোদ্ধারা আসলে ইসলামিক স্টেটের হয়ে যুদ্ধ করার জন্যই সিরিয়া গেছে অথবা পাঠানো হয়েছে।