মেইন ম্যেনু

সিসিটিভি ফুটেজে হামলাকারীদের চেহারা স্পষ্ট (ভিডিও সহ)

রাজধানীর ধানমণ্ডি হকার্স মার্কেটে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা কলেজের কিছু শিক্ষার্থীর হামলার ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ এসেছে। আর সেই ফুটেজে উঠে এসেছে হামলার ভয়াবহতা ও ব্যাপকতা।

হামলাকারীরা মার্কেটের ভেতরে বাইরে দুইদিক দিয়েই আক্রমণ চালায়। এসময় তারা লাঠিসোটা ছাড়াও ব্যবহার করে দেশীয় ধারালো অস্ত্র রামদাও। ওই মার্কেটের মোট ৪টি সিসিটিভি থেকে এই হামলার ফুটেজ পাওয়া গেছে। তাতে দেখা যায় হামলাকারীরা পুলিশের সামনেই মার্কেটে দ্রুতবেগে প্রবেশ করে। আর তাদের ভয়ে ক্রেতাদের সঙ্গে পুলিশও পালিয়ে যায়।

Hawkers Market-2
ধানমণ্ডি হকার্স মার্কেটে হামলার সময়ে সিসিটিভিতে ধারণ করা ছবি।

ফুটেজে দেখা গেছে, হঠাৎ করে ঘটা ওই হামলার সময় মার্কেটের ভেতরে এক নারকীয় অবস্থার সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে মার্কেটে আসা নারী ও শিশুরা আতঙ্কে দৌড়ে পালাতে থাকেন। আর হামলাকারীরা চলে যাওয়ার আগে কয়েকটি দোকানের কাপড়-চোপড়ও নিয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ব্যবসায়ীরা তাদের প্রতিরোধ করতে গেলে দু’পক্ষে সংঘর্ষ শুরু হয়।

এদিকে, এরইমধ্যে এই ঘটনায় মামলা হয়েছে। আনোয়ার হোসেন স্বপন নামে এক ব্যবসায়ী মামলার এজাহারে অভিযোগ করেছেন, ‘ঢাকা কলেজ ও এর আশপাশের এলাকার ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত দেড় থেকে দুইশ’ ব্যক্তি ওই এলাকার ব্যবসায়ী ও হকারদের ওপর হামলা করে।’ তবে এজহারে কারও নাম উল্লেখ করা হয়নি। পুলিশ এখন পর্যন্ত কাউকে আটক বা গ্রেফতারও করেনি।

তবে ব্যবসায়ীরা দাবি করেছেন, ‘যারা হামলা করেছে তাদের চেহারা স্পষ্ট। কাদের নেতৃত্বে হামলা হয়েছে তাও ফুটেজে দেখা যায়। পুলিশ চাইলে এখন এই ফুটেজ ধরে হামলাকারীদের চিহ্নিত এবং আটক করতে পারে।’

Hawkers Market-3
সিসিটিভির ফুটেজ থেকে সংগৃহীত আরেকটি ছবি

নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইয়াসির আরাফাত জানান,‘ আমরা এখনও কাউকে আটক করতে পারিনি। তবে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে সিসিটিভির ফুটেজ আমরা নিয়েছি। ফুটেজ দেখে আমরা হামলাকারীদের শনাক্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছি।’ তিনি আরও বলেন,‘ ফুটেজে বেশ কয়েকজন হামলাকারীর চেহারা স্পষ্ট বোঝা যায়।

উল্লেখ্য, হামলা এবং হামলা পরবর্তী সংঘর্ষে সেদিন পুলিশসহ প্রায় অর্ধশত আহত হন।

সিসিটিভিতে ধারণ করা ভিডিওচিত্রটি দেখুন:

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন