মেইন ম্যেনু

সীমান্তে ভারতীয় নেটওয়ার্কের প্রভাব

ভারতের আসামের মোবাইল অপারেটরদের চলমান নেটওয়ার্ক আপগ্রেশনের কারণে কুমিল্লা সীমান্ত এলাকায় গ্রামীণফোন ও এয়ারটেলের নেটওয়ার্কের সমস্যা হচ্ছে। একইসঙ্গে ভারতীয় বেতার তরঙ্গও সীমান্তের ৯ জেলায় নেটওয়ার্কের বাধার সৃষ্টি করছে। এতে দেশের নেটওয়ার্ক সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন মোবাইল অপারেটরের অসংখ্য গ্রাহক।

উত্তরাঞ্চলের ৯টি জেলা হলো – দিনাজপুর, রংপুর, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নওগাঁ, নীলফামারী, গাইবান্ধা, পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁও। এছাড়া দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কুমিল্লা জেলায় এয়ারটেলের নেটওয়ার্কে বাধার সৃষ্টি হচ্ছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রীংলার সঙ্গে দেখা করে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ এ সমস্যার কথা জানিয়েছেন। জবাবে শ্রীংলা জানিয়েছেন, তারা এ বিষয়ে অফিসিয়াল চিঠি পেলে তা ভারতের যথাযথ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলবে।

বৈঠকে বিটিআরসি, গ্রামীণফোন ও এয়ারটেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শেষে বিটিআরসির চেয়ারম্যান বলেন, ভারতের হাইকমিশনারের সঙ্গে পরবর্তী আলাপ করে আগামী জুনে এ বিষয়ে সমাধান করার জন্য বাংলাদেশ থেকে ভারতে বিশেষজ্ঞ টিম পাঠানো হবে। আমরা ইতোমধ্যে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে এ বিষয়ে একটি চিঠি দিয়েছি। এর অংশ হিসেবে ভারতের সঙ্গে আলাপ করার জন্য টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে চিঠি দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের শুরুর দিকে উত্তরাঞ্চলের ৯ জেলায় এ সমস্যা শুরু হয়। শিলিগুড়ির ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর অ্যান্টেনা থেকে এ সমস্যা হচ্ছে।