মেইন ম্যেনু

সীমান্তে বেড়া নির্মাণে গতি বাড়াচ্ছে ভারত

বাংলাদেশ সংলগ্ন আন্তর্জাতিক সীমান্তে কাটাতাঁরের বেড়া ও সড়ক নির্মাণ কাজে গতি আনতে সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। একই সঙ্গে সেদেশে থাকা বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠানোর বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে আলোচনাও করা হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা।

বুধবার ভারতের উচ্চ পর্যায়ের একটি সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে আসাম ট্রিবিউন এক প্রতিবেদনে বলছে, ভারত সংলগ্ন সীমান্তে অর্থনৈতিক উন্নয়নের কারণে বাংলাদেশিদের অনুপ্রবেশ কমেছে। অতীতের মতো শুধুমাত্র জীবিকা নির্বাহের জন্য বাংলাদেশিরা ভারতে অনুপ্রবেশ করছে না; তারা স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করছেন।

আসাম ট্রিবিউন ওই সূত্রের বরাত দিয়ে বলছে, আন্তর্জাতিক সীমান্তে সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) মোতায়েনের পরিমাণ বাড়িয়েছে ভারত।

এছাড়া সীমান্তে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বেড়া নির্মাণের গুরুত্ব দিচ্ছে ভারত। যে কারণে নির্মাণ কাজের সঙ্গে জড়িত সব সংস্থাকে তাগাদা দেয়া হচ্ছে। এ বিষয়টি ধারাবাহিক পর্যবেক্ষণ করছে কেন্দ্র।

সরকারি সূত্র বলছে, নদীবাহিত আন্তর্জাতিক সীমান্তে টহল এখনো ভারতের বড় সমস্যা। টহল বাড়ানো সত্ত্বেও সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ ও চোরাচালানি অব্যাহত রয়েছে।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আন্তর্জাতিক নদী সীমান্ত বন্ধ করে দিতে ব্যাপক পরিসরে কাজ করছে। ভারতে আটক বাংলাদেশিদেরকে ফেরত পাঠানো নিয়ে সমস্যায় রয়েছে নয়াদিল্লি। এর কারণ হিসেবে দেশটির কর্মকর্তারা বলছেন, ভারতে আটক বাংলাদেশিদেরকে গ্রহণে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছে বাংলাদেশ। এ বিষয়টি নিয়ে দুই দেশের মধ্যে আলোচনা চলছে।

ভারত ইতিমধ্যে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে এই ইস্যুতে আলোচনাও করেছে। ভারত মনে করে বন্ধুপূর্ণ প্রতিবেশি বাংলাদেশের বর্তমান সরকারের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনায় উন্নতি ঘটবে।