মেইন ম্যেনু

সুন্দরী যুবতী যখন বার্বি ডল!

২৬ বছরের যুবতী। অপূর্ব সুন্দরী। পেশা মডেলিং। এটা একটা দিক। আর এর উল্টো দিকটা? ২৬ বছরের এই যুবতী সারাদিন ঘরবন্দি। বাড়ির বাইরে কখনও একা যান না। কোনও বয়ফ্রেন্ড ডেটে নিয়ে যেতে চাইলে, সেখানেও মাকে নিয়ে যেতে হয় তাঁকে। এখানেই শেষ নয়, ২৬ বছরের এই মেয়ে কোন জামা পরবেন, তাও বাবা-মাই ঠিক করে দেন। এক কথায় মেয়েকে ‘পুতুল’ বানিয়ে রেখেছেন বাবা-মা।

পুতুলই বটে। ছোটবেলা থেকেই এক্কেবারে ডানাকাটা পরী মস্কোর বাসিন্দা অ্যাঞ্জেলিকা কিনোভা। মেয়ে এতটাই সুন্দর যে তাকে কোনওসময় হাতছাড়া করেননি বাবা-মা। সুন্দরী মেয়েকে সবসময় তাঁরা পুতুলের মতো সাজিয়ে-গুছিয়ে রেখেছেন। বার্বি ডলের মতো। একনজর দেখলে যে কেউ তাকে বার্বি ডলের সঙ্গে ভুল করবে। অনেকেই তাকে দেখে বলতেন ‘হিউম্যান বার্বি’।

২৬ বছরের এই রাশিয়ান যুবতীর শরীরের মাপ ৩৪-২০-৩৪। ওজন ৩৮ কেজি। মডেলিং করেন। সবই আছে। তবু খুশি নন হিউম্যান বার্বি।

তার আক্ষেপ, ‘আমি বড় হয়েছি। আমি স্বাধীন হতে চাই। কিন্তু, আমার বাবা-মা এখনও চান আমি তাদের কথায় উঠি-বসি। ওরা এখনও চান না আমি বাড়ির বাইরে যাই।