মেইন ম্যেনু

সুন্দর হলে কিন্তু বিপদ!

সুন্দর হওয়া কিন্তু কোনো ধরণের অপরাধ নয়। তবে সুন্দর হওয়ার কারণে সেই রূপটির সঙ্গে হয়ে থাকে নানা ধরনের বিপত্তি। জেনে নিন, কিভাবে আসে সেই সব বিপদ। সুন্দর হওয়ার কারণে যে ধরণের বিপদে পড়েছে অনেকেই এমন কিছু বিষয় নিয়ে একটি গবেষনা চালানো হয়েছে। আর এই বিষয় নিয়ে দুইজন গবেষকের গবেষণায় যে তথ্য উঠে এসেছে তাতে কিন্তু সিন্দুর নারী কিংবা পুরুষদের চিন্তা বাড়ানোর পক্ষে যথেষ্ট।

১. একজন লোকের চেহারা সুন্দর হলেই ধরে নেওয়া হয় তার অনান্য সব কিছুই তেমনিই সুন্দর, একজন সুন্দর দেখতে মানুষের পক্ষে এটা যথেষ্টই আতঙ্কের একটি বিষয়।

২. ক্লাসের শিক্ষরাও সুন্দর মেয়েদের ক্ষেত্রে খুব বেশি রকমের গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। তাদেরকে যত্ন সহকারে পড়াও বোঝান,

সমীক্ষায় সে তথ্যও প্রকাশ পেয়েছে। পরীক্ষায় এই সব সুন্দর দেখতে মেয়েরা যতই খারাপ ফল করুক না কেন, শিক্ষকদের কাছে এরা কিন্তু আদরের ধন।

৩. একজন পুরুষ যদি দেখতে সুন্দর হন তা হলে ধরে নেয়া হয় তিনি একজন নেতা হবেন এবং কর্মজীবনে শীর্ষস্থানে পৌঁছবেন। আর একজন নারী যদি সুন্দরী হন তা হলে তাকে নিয়ে শুরু হয় অন্য ধরণের চিন্তা ভাবনা। অনেক ক্ষেত্রে মনেই করা হয় না ওই সুন্দরীও একদিন কাজের জায়গায় শীর্ষস্থানে পৌঁছনোর ক্ষমতা রাখেন।

৪. চাকরির ইন্টারভিউ দিতে গেলেন, নিয়োগকর্তা বুঝলেন আপনি তার থেকে অনেক সুন্দর দেখতে বা আপনার চলেফেরা কাথা বলার ধরণ একেবারে অন্যরকম, তা হলে অথৈ জলে ভেসে গেল আপনার চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা।

৫. জানেন কি, যেসব মানুষ দেখতে অনেক সুন্দর তারা সেভাবে অন্যদের থেকে পাত্তা পান না। সমীক্ষায় প্রকাশ, বিশেষ করে চিকিৎসকরা মনে করেন, সুন্দর দেখতে এমন কোনো লোকের অসুখ-বিসুখও নাকি হয় না! এমনকি, অতি সুন্দরদের মানুষ এড়িয়ে চলতেই পছন্দ করেন।

৬. এমনকি, অনলাইন ডেটিং সংস্থাতেও সমীক্ষা চালানো হয়েছিল, সেখান থেকে পাওয়া তথ্যে জানা যাচ্ছে, অতি সুন্দরদের থেকে কম সুন্দর দেখতে এমন লোকের সঙ্গে ডেটিং-এর কদর বেশি।

এই প্রতিবেদন থেকে কি বুঝলেন? হতাশ হবেন না। একবার চিন্তা করে দেখেন আপনার জীবনের কোনো না কোনো একটা দিকও কিন্তু অনেক সুন্দর। আর সেই থেকেই বাকি জীবনটাকে আরো সুন্দর করে সাজানোর চেষ্টা করুন। দেখবেন আপনিও অনেক দিক থেকে গুরুত্ব পাবেন আপনার সমাজে।