মেইন ম্যেনু

সুবর্ণচরে ২১ দিনে উদ্ধার হয়নি কলেজ ছাত্রী, পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় অপহৃত কলেজ ছাত্রী সুমি রানী মজুমদারকে ২০দিনেও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনায় মামলার পর আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করলেও পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করছে না বলে অভিযোগ অপহৃতের পরিবারের।

দুপুর সোয়া ১২টায় নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সহীদ উদ্দিন এস্কান্দার কচি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে অপহৃতের পরিবারের সদস্যরা এ অভিযোগ করেন। অপহৃত সুমি রানী মজুমদার সুবর্ণচর উপজেলার পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নের হাজীপুর গ্রামের দিনমজুর শিবানন্দ মজুমদারের মেয়ে এবং সৈকত ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

লিখিত বক্তব্যে অপহৃতের মা লিপি রানী মজুমদার বলেন, সুমি স্থানীয় সৈকত ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী। কলেজে যাওয়া আসার পথে প্রতিবেশী মো. নবীর বখাটে ছেলে সোহাগ তাকে উত্যক্ত করতো। এর এক পর্যায়ে সোহাগ সুমিকে প্রেমের প্রস্তাব দিলে সে ধর্মের ভিন্নতা দেখিয়ে তা প্রত্যাখান করে।

বিষয়টি সুমি তাকে ও তার বাবা কে জানালে তারা সোহাগের পরিবারকে বিষয়টি অবহিত করেন। এতে সোহাগ ক্ষিপ্ত হয়ে বেপরোয়া হয়ে ওঠে এবং অপহরণের হুমকি দেয়। তারই জের ধরে গত ১৯ ডিসেম্বর পার্শ্ববর্তী বৈরাগী বাজারে মাসির (খালা) বাড়ি যাওয়ার পথে স্থানীয় হেডম মার্কেট এলাকা থেকে সোহাগসহ বেশ কয়েকজন মিলে সুমিকে জোর পূর্বক সিএনজি অটোরিকশায় তুলে নিয়ে যায়।

অপহৃতের মা অভিযোগ করেন, বিষয়টি চরজব্বার থানায় জানিয়ে মামলা করতে গেলে নানা অজুহাতে মামলা নিতে চায়নি ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। কয়েকদিন পর হিন্দু-বৈদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় অপহরণের ১২দিন ১ জানুয়ারি থানা মামলাটি গ্রহণ করেন। কিন্তু আসামীরা হরহামেশা ঘুরা ফেরা করলেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার বা সুমিকে উদ্ধারে কোন তৎপরতা নেই পুলিশের।

আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় মামলা তুলে নিতে অপহৃতের পরিবারকে প্রতিনিয়ত হুমকি-ধুমকি দিয়ে আসছে। এতে পুরো পরিবার এক দিকে নিরাপত্তা হীনতায় ভূগছে, অপর দিকে সুমি মৃত না জীবিত এ দু:শ্চিন্তাই নির্ঘুম দিন কাটাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে প্রশাসনের কাছে সুমিকে উদ্ধার ও অপহরণকারীদের গ্রেপ্তার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান তারা।

চরজব্বর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইব্রাহিম বলেন, অপহরণের ঘটনায় এক সপ্তাহ আগে মামলা হয়েছে। মামলার আসামীরা পলাতক থাকায় তাদের গ্রেপ্তার করা যাচ্ছে না। তবে আসামীদের গ্রেপ্তার ও অপহৃত সুমিকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।