মেইন ম্যেনু

‘সুবিচারের সম্ভাবনা এখন তিরোহিত’

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, বাংলাদেশ এখন অন্যায়, অবিচার, অনাচার ও দুঃসময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এ দেশে মানুষের সুবিচার পাওয়ার সম্ভাবনা এখন সম্পূর্ণরুপে তিরোহিত। ক্ষমতাসীন জবরদখলকারীরা সীমাহীন জুলুমের মাধ্যমে জনগণের সব অধিকার নিয়েছে।

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে শুক্রবার দেওয়া এক বাণীতে তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, ‘অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়তে ১০ মহররমের আত্মত্যাগের চেতনাকে বুকে ধারণ করেই হারানো গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে। স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে।’

বিএনপি চেয়ারপার্সন বলেন, ‘১০ মহররম সারা বিশ্বের মুসলিম উম্মাহর জন্য একটি অত্যন্ত তাৎপর্যময় দিন। পবিত্র আশুরার এ দিনে ঘটেছিলো এক শোকাবহ ঘটনা। অন্যায় আর অবিচারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে গিয়ে মহানবি হজরত মুহম্মদ (সা.) এর প্রিয় দৌহিত্র হজরত ইমাম হোসেন (রা.) এ দিনে শাহাদাত বরণ করেছিলেন। কারবালা প্রান্তরে সেই হৃদয়বিদারক ঘটনা আজো মানুষকে কাঁদায় এবং বেদনার্ত করে। সত্য ও ন্যায়ের জন্য তার আত্মত্যাগ বাংলাদেশসহ মানবজাতির জন্য অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।’

খালেদা জিয়া আরও বলেন, ‘অন্যায়, অবিচার অন্যায্য ও অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী হওয়া প্রতিটি মানুষের কর্তব্য। ইসলাম আমাদেরকে সে শিক্ষাই দেয়। মহানবীও (সা.) অন্যায়কে প্রতিহত করার নির্দেশ দিয়ে গেছেন। তার উম্মত হিসেবে আমাদের কর্তব্য যেকোনো গণবিরোধী ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর কৃত অনাচার আর অবৈধ ক্ষমতার দাপটের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা।’

বাণীতে বিএনপি নেত্রী শহীদ হজরত ইমাম হোসেন (রা.), তার পরিবারের সদস্যদের এবং কারবালার সব শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান এবং তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।