মেইন ম্যেনু

সুয়ারেজের গোলে বার্সার নাটকীয় জয়

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচ। খেলার ৭৯ মিনিট শেষ। বার্সেলোনা জার্মান দল বায়ার লেভারকুসেনের বিপক্ষে ১-০ গোলে পিছিয়ে। সবাই মেসিহীন বার্সেলোনার পরাজয়ের অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন। ঠিক সেই সময়ই জ্বলে উঠলো বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। দুই মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল করে বায়ারকে ২-১ গোলে হারিয়ে তিন পয়েন্টের স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ে লুইস এনরিকের দল। নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হওয়ার আট মিনিট আগে অসাধারণ এক গোল করে দলকে জয় এনে দেন বার্সেলোনার উরুগুয়ে স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ।

মঙ্গলবার ঘরের মাঠ ন্যু-ক্যাম্পে খেলার ২১তম মিনিটে বার্সেলোনাকে স্তব্ধ করে দেয় সফরকারী লেভারকুসেন। তুরস্কের মিডফিল্ডার হাকান কালাহানোগ্লুর কর্নার থেকে ভেসে আসা বলে দারুণ এক হেডে গোল করে সফরকারীদের এগিয়ে নেন কিরিয়াকোস পাপাদোপোলোস। প্রথমার্ধে শত চেষ্টা করেও সমতায় ফিরতে পারেনি কাতালানরা।

দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক আক্রমণ করেও সমতায় ফিরতে পারছিল না লুইস এনরিকের দল। অবশেষ ৮০তম মিনিটে গোলের দেখা পেল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। সুয়ারেজের শট বায়ার লেভারকুসেনের গোলরক্ষক লেনো ফিরিয়ে দিলেও তা ক্লিয়ার করতে পারেননি। ফিরতি বলে বুলেটগতির শটে জালে পাঠান সার্জি রবার্তো। এর দুই মিনিট পর সুয়ারেজের গোলে আনন্দে মেতে উঠে গোটা ন্যু-ক্যাম্প। মেসির পরিবর্তে একাদশে ঢোকা মুনির এল হাদ্দাদির পাস থেকে দারুণ এক শটে সফরকারী গোলরক্ষককে পরাস্ত করে দলকে জয় এনে দেন লিভারপুলের সাবেক এই স্ট্রাইকার।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে এএস রোমার সঙ্গে ১-১ গোলের হতাশাজনক ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। আর প্রথম ম্যাচে বাতে বরিসভকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেয়া লেভারকুসেন দ্বিতীয় ম্যাচে চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে এগিয়ে গিয়েও ২-১ গোলের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে।

‘ই’ গ্রুপের অন্য ম্যাচে ইতালিয়ান ক্লাব এএস রোমাকে ৩-২ গোলে হারিয়ে লড়াই জমিয়ে তুলেছেস বাতে বরিসভ।