মেইন ম্যেনু

সেই কলম্বিয়াই কাল হলো ব্রাজিলের!

বিশ্বকাপ থেকে কোপা আমেরিকা। এর মধ্যবর্তী সময়ে দারুণ ছন্দে ছিল ব্রাজিল। কার্লোস দুঙ্গা দায়িত্ব নেওয়ার পর জয়ের রথেই ছিল তারা। কিন্তু কোপা আমেরিকার গ্রুপ পর্বে কলম্বিয়ার কাছে হেরে দুঙ্গার দলের জয়রথে ছেদ পড়ে।

শুধু ছেদ পড়েই ক্ষান্ত হয়নি। ওই ম্যাচে নেইমার লাল কার্ড দেখেন। ছিটকে যান কোপা আমেরিকা থেকে। শেষ পর্যন্ত ব্রাজিল কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে। কিন্তু নেইমার স্কোয়াডে থাকলে যে ব্রাজিলকে দেখা যায়, তার অনুপস্থিতিতে সেই ব্রাজিলকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। শেষ পর্যন্ত নেইমারবিহীন ব্রাজিল প্যারাগুয়ের কাছে টাইব্রেকারে হেরে কোপা আমেরিকা থেকে বিদায় নিয়েছে।

ব্রাজিলের জন্য কাল হয়েছে কলম্বিয়া। তাদের বিপক্ষে নেইমার লাল কার্ড না পেলে হয়তো এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হতো না সেলেসাওদের।

শুধু কোপা আমেরিকা কেন? কলম্বিয়া যে ব্রাজিলের জন্য কাল হয়েছিল বিশ্বকাপেও। বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়ার জুনিগার হাঁটুর আঘাতে কোমর ভেঙে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন নেইমার। এর পরের গল্প তো সবারই জানা। সেমিফাইনালে নেইমারকে ছাড়া ব্রাজিল ৭-১ গোলের ব্যবধানে হারে জার্মানির কাছে। হয়তো নেইমার দলে থাকলে অমন হারের শিকার হতে হতো না পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।

উপরোক্ত দুটি ঘটনার আলোকে বলা যায় ব্রাজিলের জন্য কলম্বিয়া রীতিমতো যমদূতের মূর্তিতে আবির্ভূত হয়েছে। বিশ্বকাপের পর কোপা আমেরিকাতেও ব্রাজিলের কাল হলো এই কলম্বিয়া!