মেইন ম্যেনু

সেই ৫ নবজাতকের ৩ জন মারা গেছে

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আরজিনা বেগমের গর্ভে জন্ম নেওয়া পাঁচ সন্তানের মধ্যে তিন সন্তান মারা গেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে দুজন এবং বুধবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে একজন মারা যায়।

মা ও অপর দুই সন্তান এখনো সুস্থ আছে বলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন।

জানা গেছে, গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার কিশামত শেরপুর গ্রামের গৃহবধূ আরজিনা বেগমের সঙ্গে একই এলাকার শেরেগুল ইসলামের (৩৫) বিয়ের হয় প্রায় ১২ বছর আগে। বিয়ের পর থেকে দীর্ঘ দিনেও তাদের সন্তান না হওয়ায় শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছে অপাংক্তেয় হয়ে ওঠে আরজিনা বেগম। অবশেষে গত মঙ্গলবার তার প্রসব বেদনা শুরু হলে বিকেলে তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সন্ধ্যায় গাইনি ডাক্তার সিরাজুম মুনিরা ডেইজির নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক সফল অস্ত্রোপচার করেন। এতে জন্মলাভ করে পাঁচটি ফুটফুটে বাচ্চা। যার তিনটি ছেলে ও দুটি মেয়ে। এর মধ্যে বুধবার রাতে এক মেয়ে ও বৃহস্পতিবার বিকেলে দুই ছেলে মারা যায়। বর্তমানে এক ছেলে ও এক মেয়ে জীবিত রয়েছে।

আরজিনা বেগমের তিন সন্তানের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাইনি বিভাগের চিকিৎসক সিরাজুম মুনিরা।