মেইন ম্যেনু

সেদিনের সেই ফলের দোকানদার আজ পরেন কোটি টাকার সোনা!

১০ বছর আগে সোনার নাম শুনলেও প্রথম সোনার স্পর্শের অভিজ্ঞতা ফলবিক্রেতা কানহাইয়ালাল খাটিকের চোখেই স্পষ্ট দেখা যাচ্ছিল। সেদিন থেকেই সোনার প্রতি তার টান। এই সোনা প্রীতিই বদলে দিল এক ফলবিক্রেতার জীবন।

বর্তমানে আড়াই কিলো সোনা পরে ঘুরে বেড়ান কানহাইয়ালাল। ঠিক বাপি লাহিড়ি’র মতো। রাজস্থানের চিত্তুরের এক সামান্য ফল-সব্জি বিক্রেতা কানহাইয়ালাল আজ লাখপতি ব্যবসায়ী।

অর্থের সঙ্গে সঙ্গে প্রভাব প্রতিপত্তিও বেড়েছে তার। BJP-এর জেলা সচিব হওয়ার পাশাপাশি খাটিক সমাজের সভাপতিও বটে কানহাইয়ালাল।

৭২ লাখ টাকা সোনার গয়না পরে ঘুরে বেড়ালেও নিজের জন্য কোনো নিরাপত্তারক্ষী নেন না তিনি। কানহাইয়ালাল জানান, অধিকাংশ সময় বাড়িতে থাকায় তার সঙ্গে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

সোনা প্রীতির কারণ জিজ্ঞাসা করলে কানহাইলাল বলেন, ‘বন্ধুই প্রথম সোনার সঙ্গে পরিচয় করায়। সে আমায় ১০০ গ্রাম সোনা দিয়েছিল। তারপর থেকে সোনা প্রীতি শুরু।’