মেইন ম্যেনু

সেদিন যে কষ্টের কারণে ক্রিকেট ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন সৌম্য সরকার

সৌম্য সরকারকে হয়তো নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। এবারের প্রতিবেদন বাংলাদেশের ক্রিকেট ইস্যুতে তার দেয়া নানা চমকপ্রদ তথ্য নিয়েই। জাতীয় দলে আসার পরে পাল্টে যাওয়া সৌম্য সরকার কথা বলেছেন নানা দিক নিয়ে। সৌম্য সরকার বলেছেন আমার লক্ষ্য বাংলাদেশের হয়ে ১০-১২ বছর খেলা।

সৌম্য বলেন, আমি জানি এ জন্য আমাকে কঠিন পরিশ্রম করতে হবে। বিশ্বকাপ থেকে প্রায় প্রত্যেকটি ম্যাচে আমি ভালো শুরু করছি, কিন্তু সেগুলো বড় ইনিংসে পরিণত করতে পারিনি। ব্যাটিংয়ে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন সৌম্য সরকার বলেও জানান। দেশের হয়ে দশ হাজার রান করতে চান তিনি। সৌম্য বলেন, এই চেষ্টাই করে যাবেন এখন থেকে।

পরে সৌম্য সরকার বলেন, মাশরাফি ভাই আমাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখেন। আমি, তার স্বপ্ন পূরণ করতে চাই। পরে মাশরাফিকে যোদ্ধা আখ্যায়িত করে সৌম্য বলেন, ‘তিনি হলেন আসল যোদ্ধা। সৌম্য সরকার বলেন, মাশরাফি ভাইয়ের মতো আমি বিশ্বাস করি, ভালো ক্রিকেটার হওয়ার পাশাপাশি ভালো মানুষ হতে চাই আমি। তাই আমি লড়াইয়ের মানসিকতা পছন্দ করি।

সাকিব এবং যুবরাজ সিং তার অনুপ্রেরণা বলে জানান তিনি। ছেলেবেলায় ডানহাতি ছিলেন তিনি। সৌরভ, লারাকে দেখেই ব্যাট তুলে নেন সৌম্য। সৌম্য বলেন, সৌরভ এবং লারার ড্রাইভ দেখে বামহাতি হয়ে যাই। দেখে থাকবেন, আমি ডান হাত দিয়েই থ্র করি। এমনকি বলও করি ডান হাতে।

বিকেএসপিতে পড়ার অভিজ্ঞতা বলেন তিনি। সৌম্য বলেন, এমন কেউ ছিলেন না যিনি বাড়ির কথা মনে করেন না কাঁদত। এই কষ্টে সেদিন তিনি ক্রিকেট ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন বলেও জানান এই টাইগার অলরাউন্ডার।