মেইন ম্যেনু

সেন্টমার্টিনে সতর্ক সংকেতে জাহাজ চলাচল বন্ধ

বৈরি আবহাওয়ার কারণে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে দ্বীপে আটকা পড়েছে প্রায় দেড় হাজার পর্যটক। শুক্রবার সকালে ঘাটে এসেও কয়েক হাজার পর্যটক সেন্টমার্টিন বেড়াতে যেতে পারেননি।

এদিন ভোর থেকে বৈরি আবহাওয়া ও ৩নং সতর্ক সংকেত থাকায় টেকনাফ থেকে কোনো জাহাজ সেন্টমার্টিনের উদ্দেশে ছেড়ে যায়নি। তাই বৃহস্পতিবার সকালে দ্বীপে ভ্রমণে যাওয়া দেড় হাজার পর্যটকরা সেখানে আটকা পড়েছেন।

তবে, কোস্টগার্ডের স্পিডবোটে বিশেষ ব্যবস্থায় নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান সরকারি সিডিউল মতে সেন্টমার্টিন গেছেন।

কক্সবাজার আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ একেএম নাজমুল হক বলেন, সঞ্চালনশীল মেঘমালার জন্য সাগর উত্তাল থাকতে পারে। হতে পারে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাতও। সেজন্য বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে ৩নং সতর্ক সংকেত প্রদান করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সাগর ও নাফ নদীতে মাছ শিকার ও পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

পর্যটকবাহী জাহাজ কেয়ারি সিন্দাবাদের ব্যবস্থাপক মুহাম্মদ শাহ আলম জানান, প্রতিদিনই টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে কেয়ারি সিন্দাবাদ, কেয়ারি ড্রাইনিং অ্যান্ড ক্রুজ, এমবি বাঙ্গালি, এলসিটি কুতুবদিয়া, বে ক্রুজ ও এলসিটি কাজল পর্যটক নিয়ে চলাচল করে। কিন্তু শুক্রবার বৃষ্টি ও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে কয়েক হাজার পর্যটক সেন্টমার্টিন যেতে পারেনি। ফলে যাত্রীদের টিকেটের টাকা ফেরত দিতে হয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শফিউল আলম বলেন, বৈরি আবহাওয়ার কারণে নৌরুটে জাহাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। সেন্টমার্টিনে আটকেপড়া পর্যটকরা সেখানে নিরাপদে রয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, আবহাওয়া পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আটকেপড়া পর্যটকদের ফিরিয়ে আনা হবে।