মেইন ম্যেনু

সে কাজগুলো একজন সুখী মানুষ করতে ভোলে না কখনোই!

জীবনে সুখী হতে কে না চায়? তবে তাই বলে সব মানুষই তো সুখী হয়না। কেন এমনটা হয়? ভেবে দেখেছেন কি কখনো? মূলত, সুখী হতে চাইলেও অনেকে সেই কাজগুলোকে এড়িয়ে চলে যেগুলো একজন মানুষকে সুখী করে তুলতে সাহায্য করে। যেগুলো একজন প্রকৃত সুখী মানুষ করতে ভুলে যায়না কখনোই। জানতে চান সেই কাজগুলো কি? চলুন জেনে নিই।

১. নিজের প্রতি মনযোগ দেওয়া

প্রত্যেকটি মানুষের জীবনেই কষ্ট ও আনন্দ থাকে। ব্যাপারটা এমন কখনো হয়না যে কারো জীবনে শুধুই আনন্দ বা শুধুই কষ্ট। কিন্তু মানুষ সবার কাছে সেই কষ্টটাকে নয়, বরং আনন্দ আর হাসিমুখটাকে, নিজের কৃতিত্বটাকেই প্রকাশ করতে চায়। তাই অন্যের ভালো থাকার, অর্জনের কথা শুনে মোটেই তাকে নিয়ে চিন্তা করা শুরু করেনা প্রকৃত সুখী মানুষেরা। বরং অন্যের আনন্দে নিজেকে ব্যর্থ ভেবে কষ্ট পাওয়ার চাইতে নিজের জীবনকে কি করে আরো একটু ভালো ও আনন্দময় করে তোলা যায় সেটার দিকেই বেশি মনযোগ দেয় তারা।

২. নিজের প্রতি বিশ্বাস রাখা

কোন নতুন কাজ শুরু করতে গেলে প্রতিটি মানুষকেই অনেক বাঁধার মুখে পড়তে হয়। কথাটি কেবল কোন নির্দিষ্ট সময় বা নির্দিষ্ট মানুষের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। বরং সবসময় আর সব কাজ ও মানুষের ক্ষেত্রে এমনটা হবেই। সমস্যাটা এই কথাগুলোকে নিয়ে নয়। সমস্যা এখানে যে, বিভিন্ন মানুষের বিভিন্ন হতাশামূলক কথার জেরে একটা সময় মানুষ নিজের প্রতি আর নিজের কাজের প্রতি বিশ্বাস হারিয়ে ফেলে। ভাবে-সত্যিই ঠিক করছি তো? তবে সুখী মানুষেরা কখনোই নিজের কাজের প্রতি অনাস্থা রাখেনা। যেটাকে ভালোবাসে করতে সেটাই করে। মানুষ উত্সাহ দিক কিংবা না দিক নিজের আর নিজের ভালোলাগার প্রতি কখনোই বিশ্বাস হারায় না তারা।

৩. সচেতনভাবে খুশি থাকা

মনে করুন, আপনার কাছে থাকার জায়গা আছে, তিনবেলা পেট ভরে খেতে পাচ্ছেন আপনি। কেবল তাই নয়, এসবের সাথে সুন্দর একটা পরিবার, কাউকে ভালোবাসতে পারার মতন একটা সুন্দর মন আর দরকারের সব সুবিধাগুলোই রয়েছে আপনার কাছে। আর কি চাই তাহলে আপনার? ভাবছেন, এতটা টাকা হলে হয়তো আপনি আরো সুখি হতেন? কিংবা ভালোবাসার মানুষটার সাথে বিচ্ছেদ না হলে, তাকে কাছে পেলে সুখকে খুঁজে পেতেন আপনি? এমনটা ভাবলে চরম ভুল হচ্ছে আপনার। কারণ, এভাবে কখনোই কেউ সুখি হতে পারেনা। আপনার একটা চাওয়া পূরণের সাথে সাথে আরেকটা চাওয়ার জন্ম হবে। ফলে সুখী আপনি হতে পারবেননা। সুখী মানুষেরা কখনোই নিজের কাছে যা আছে সেগুলোকে ছোট করে দেখেনা। বরং, সবকিছুকে নিয়েই সচেতনভাবে ভাবে যে সে সুখী।

৪. বর্তমানকে জড়িয়ে ধরা

প্রতিটি মানুষেরই একটা কষ্টকর বা লজ্জাজনক অতীত আছে। যেটা কখনোই তাকে সামনে এগোতে দেয় না। বরং অনেকটা অবশ করে দেয় মানসিকভাবে। জীবন থেকে যেতে চায় বারবার এই কষ্টকর অতীতের জন্যে। তাই সুখী মানুষেরা কখনোই নিজের জীবনের সেই অতীত যেটা তাকে বারবার কষ্ট দেয় সেটাকে মনে রাখেনা। অতীতের ভালো আর অনুপ্রেরণামূলক অধ্যায় ও স্মৃতিগুলোকে নিয়ে এগিয়ে যায় সামনে। বর্তমানের সাথে পায়ে পা রেখে।