মেইন ম্যেনু

নির্বাচন অনিশ্চিত

সোহাগ-জাকিরই হচ্ছেন ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদক

প্রত্যক্ষ ভোটের মাধ্যমে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতৃত্ব নির্বাচনের ঘোষণা থাকলেও শেষ পর্যন্ত একটি সিন্ডিকেট এ প্রক্রিয়া থেকে সরে যাচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে। ফলে সংগঠনটির নেতৃত্ব অনেকটা চূড়ান্ত হয়ে গেছে। আর তাই যদি হয় তাহলে সাইফুর রহমান সোহাগ সভাপতি ও জাকির হোসেনই হচ্ছেন সাধারণ সম্পাদক।

তারা আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ওবায়দুল কাদের সমর্থিত ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লিয়াকত সিকদার সিন্ডিকেটের প্রার্থী হিসেবে পরিচিত। বর্তমান সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলমও আছেন এ সিন্ডিকেটে।

অপরদিকে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম ও ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন সিন্ডিকেট তাদের প্রার্থী এখনো চূড়ান্ত করতে পারেনি। এমনকি শেষ মুহূর্তে তারা নির্বাচনে অংশ নেবেন না বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন ওই সিন্ডিকেট থেকে ছাত্রলীগের শীর্ষ পদপ্রত্যাশী এক নেতা।

ওই সিন্ডিকেটের আরও কয়েকজন নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা মনে করছেন নির্বাচন হলেও তাদের গ্রুপ থেকে জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। কারণ যারা কাউন্সিলর হিসেবে ভোট দেবেন তারা সবাই বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুসারী।

বর্তমান কমিটির পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সাইফুর রহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। তার বাড়ি মাদারীপুরে। জাকির হোসেন বর্তমান কমিটিতে সহ-সম্পাদক পদে ছিলেন। মৌলভীবাজারের জাকির ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র।

এদিকে রবিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে গিয়ে দেখা যায়, সারাদেশ থেকে আগত কাউন্সিলররা ‘সোহাগ-জাকির পরিষদ, …শেখ হাসিনার পরিষদ’ স্লোগান দিয়ে সম্মেলন স্থল মুখরিত করে রেখেছেন। সেখানে অন্য কোনো প্যানেলের প্রার্থী বা সমর্থকদের দেখা যায়নি।

এর আগে ছাত্রলীগের শনিবার সম্মেলনের দিন দুই সিন্ডিকেটের নেতারা সমঝোতায় পৌঁছতে না পারায় অবশেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ভোটের মাধ্যমে সংগঠনটির আগামীর নেতৃত্ব নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে রবিবার সকাল ১০টায় এ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

এর আগে ছাত্রলীগের নেতৃত্বে কারা আসবেন তা ঠিক করতে সাবেক নেতাদের দুই সিন্ডিকেটের শীর্ষনেতারা দফায় দফায় বৈঠক করেন।

ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কার্যালয়ে শনিবার দুপুরে প্রথমে দুই সিন্ডিকেটের নেতাদের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী সাইফুজ্জামান শিখর, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লিয়াকত শিকদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু, সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, বর্তমান সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম।

রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শনিবার সকালে ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ছাত্রলীগের সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ শনিবার বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী স্বচ্ছ ভোটের মাধ্যমেই ছাত্রলীগের নেতা নির্বাচিত হচ্ছে।’ দ্য রিপোর্ট