মেইন ম্যেনু

সৌদি আরবে পানি ফুরিয়ে যাচ্ছে!

সৌদি আরবে ভূগর্ভস্থ পানি আগামী ১৩ বছরের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন দেশটির বিশেষজ্ঞরা। তাই পানি ব্যবহারের জন্য জনগণের ওপর এরই মধ্যে কর আরোপ করা শুরু হয়েছে।

বাদশাহ ফয়সাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি মেম্বার মোহাম্মদ আল গামদি সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, বিশ্বে প্রাকৃতিক পানির সংকট তৈরি হচ্ছে –এ বিষয়ে বিশ্বব্যাংক একটি প্রতিবেদন প্রকাশের পর থেকে পানি ফুরিয়ে আসছে।

সৌদি পত্রিকা আল-ওয়াতানের বরাত দিয়ে ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যম দি ইনডিপেনডেন্ট জানিয়েছে, মধ্যপ্রাচ্যের এ দেশটিতে জনপ্রতি পানির ব্যবহার অত্যন্ত বেশি। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পানি ব্যবহারকারীদের মধ্যে অন্যতম এই দেশটি। এ কারণে ভূগর্ভের পানি শেষ হয়ে যাচ্ছে।

সৌদি আরবে প্রতিদিন জনপ্রতি গড়ে পানি ব্যবহার করা হয় ২৬৫ লিটার। ইউরোপীয় ইউনিয়নের চেয়ে যা প্রায় দ্বিগুণ।

আল-গামদি বলেন, ‘আনুষ্ঠানিক যে হিসাব প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে কৃষি এলাকায় পানির স্তর মারাত্মকভাবে নেমে গেছে। এটা দিয়েই পরিস্থিতির ভয়াবহতা বোঝা যায়।’

সৌদি আরব পানির জন্য দুটি উৎসের ওপর নির্ভর করে –একটি ভূগর্ভস্থ পানি, অন্যটি পরিশোধনের মাধ্যমে সাগরের পানি। কিন্তু সাগরে পানি পরিশোধনে প্রচুর জ্বালানি খরচ হয়। ভূগর্ভস্থ পানির মাধ্যমেই সৌদি আরবের ৯৮ শতাংশ চাহিদা পূরণ হয়।

সৌদি আরবের আরেক সংবাদমাধ্যম দ্য নিউ আরব জানিয়েছে, দেশের মধ্যাঞ্চলের জলাধারগুলো শুকিয়ে বালির গর্তে পরিণত হয়েছে।