মেইন ম্যেনু

সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় নামলেন এবার সন্ন্যাসী-সন্ন্যাসিনীরা!

সুন্দরী মডেল নয়, কলেজ-পড়ুয়া হ্যান্ডসাম হাঙ্কও নয়, আপাতভাবে যাঁরা সংসার নামক এই সিস্টেমের বাইরে অবস্থান করেন, তাঁরাই এবার প্রতিযোগিতা মঞ্চে।

সৌন্দর্যের শিরোপা পেতে কে না পছন্দ করেন। তবে এবার কোনও সেলিব্রিটি তারকা নয়, সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় এবার অংশ নিলেন জাপানি সন্ন্যাসী এবং সন্ন্যাসিনীরা। এই নিয়ে দ্বিতীয়বার ‘সবচেয়ে সুন্দর সন্ন্যাসী প্রতিযোগিতা’র আয়োজন হল সেদেশে। উদ্যোগটা মূলত সন্ন্যাসীদের তরফ থেকেই ছিল।

এই প্রতিযোগিতার কোনও নির্দিষ্ট বিচারক ছিল না। সৌন্দর্যের বিচার করেছেন দর্শকরাই। তাঁরাই তাঁদের পছন্দসই সন্ন্যাসীকে ভোট দিয়ে জেতার সুযোগ করে দিয়েছেন। মাত্র ৫ জন প্রতিযোগী নিয়ে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু তাঁদের মধ্যে আবার ২ জন প্রতিযোগী অংশ নিতে পারেননি টোকিওতে ঘটে যাওয়া আকস্মিক টাইফুনের জন্য।

যেসব সন্ন্যাসীরা তাঁদের অনুগামীদের সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত করেছেন, তাঁদেরই বেশি ভোট দিয়েছেন দর্শকরা। আর সেই অনুযায়ী এই প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছেন টোকিওর সন্ন্যাসিনী কোয়ু ওসাওয়া। উপস্থিত দর্শকদের মতে, তিনি তাঁর অনুগামীদের সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত করেছেন।

সন্ন্যাসিনী কোয়ু ওসাওয়া জানান, শুধুমাত্র বৌদ্ধ ধর্মের প্রচার করাই তাঁর একমাত্র উদ্দেশ্য নয়, তিনি তাঁর অনুগামীদের ধ্যানের মধ্যে দিয়েই মুক্তি লাভের কথা বলতেন। তাঁর উপদেশের এই ধরন হয়তো দর্শকদের মন ছুঁয়ে গিয়েছিল। আর তাই হয়তো সেই কারণেই, তাঁকেই সেরা হিসেবে বেছে নেন দর্শকরা।