মেইন ম্যেনু

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলায় গত বুধবার ও শুক্রবার দুই স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে একটি ধর্ষণের মামলার আসামি উপজেলার কাগাপাশা ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি সামছুল আলমকে শনিবার গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মামলার বরাত দিয়ে বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নির্মলেন্দু চক্রবর্তী জানান, সামছুল আলম গত শুক্রবার দিবাগত রাতে কাগাপাশা ইউনিয়নের এক রাজমিস্ত্রির ঘরে ঢুকে তাঁর পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়েকে ধর্ষণ করে। ওই সময় বাড়িতে কেউ ছিলেন না। স্কুলছাত্রীর মা-বাবা বাসায় এসে ঘটনা জানতে পারেন এবং ছাত্রীর মা আজ থানায় মামলা করেন। ওই মামলার আসামি সামছুল আলমকে আজ শনিবার দুপুরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এর আগে গত বুধবার রাত ৮টায় বানিয়াচংয়ের খাগাউড়া ইউনিয়নের চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে গেলে পাশের বাড়ির ছয়ফুল মিয়া (২২) ছাত্রীকে ধরে নিয়ে ধর্ষণ করে। ছাত্রীর বাবা বিষয়টি জানতে পেরে ছয়ফুলের বাবাকে ঘটনা জানান। তিনি সালিসের মাধ্যমে ঘটনার নিষ্পত্তি করা হবে বলে ছাত্রীর বাবাকে জানান। কিন্তু দুদিনেও কোনো সমাধান না পেয়ে গত শুক্রবার বিকেলে থানায় এসে ছয়ফুলকে আসামি করে মামলা করেন ছাত্রীর বাবা। ঘটনার পর থেকে ছয়ফুল পলাতক।

বানিয়াচং থানার ওসি নির্মলেন্দু চক্রবর্তী জানান, ছয়ফুলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।